অন্ত ঃসত্ত্বা স্ত্রীকে কুপিয়ে রক্তাক্ত

2

 

কে এম সোহেল,আমতলী প্রতিনিধিঃ  শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে ঝগড়ার  জের হিসেবে চলের আঘাতে স্ত্রী মারজানা লাইজুকে মারাত্মকভাবে আহত করলো তার স্বামী হুমায়ুন খন্দকার। লাইজু বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। তালতলী থানা ও সচেতন নাগরিক পরিষদ তালতলি উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি মজিবর জমাদ্দার জানান, সোমবার  সন্ধ্যার দিকে থালতলী উপজেলার মালিপাড়ায় পারিবারিক কলহের  রেশ ধরে শাহজাহান খন্দকার ও তার স্ত্রী  সেলিনার সাথে ঝগড়া হয়। কিছুক্ষণ পর  সেখানে তাদের  ছেলে হুমায়ুন খন্দকার উপস্থিত হলে তারা ছেলেকে পুত্রবধূর বিরুদ্ধে উসকানি দিলে  ছেলে  ক্রোধাম্বিত হয়ে ঘর  থেকে মাছ ধরা চল  বের করে স্ত্রী মারজানা লাইজুকে আঘাত করে। জানা  গেছে লাইজু গর্ভবতী। সঙ্গে সঙ্গে তাকে তালতলী থানায় নিয়ে  গেলে পরিস্থিতি সংকটজনক  দেখে আহতকে দ্রুত বরিশাল  শেরে বাংলা  মেডিকেল কলেজে  প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে লাইজুর অবস্থা সংকটজনক। এ বিষয় তালতলী সচেতন নাগরিক পরিষদের সম্পাদক  সেলিনা হোসেন জানান, হুমায়ুন খন্দকার একজন নির্যাতনকারী।  সে আগেও কয়েকবার স্ত্রীকে নির্যতন করেছে। তারা মিল মীমাংসা করে দিলেও স্বামীর জন্য ফয়সালা হয়নি।  তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কমলেশ চন্দ্র হাওলাদার জানান এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে । আসামী গ্রেফতারের জোর  চেষ্টা চলছে।