আঃলীগ প্রার্থীর নির্বাচন বাতিলের দাবী বরগুনা পৌর নির্বাচনে নৌকায় সিল মারা ব্যালট পেপার উদ্ধার

2

pic-5কে এম সোহেল, আমতলী প্রতিনিধি : বরগুনা সদরে পৌর নির্বাচনের দুইদিন পর নৌকায় সিল মারা ব্যালট পেপার উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভোট কেন্দ্রের একটি ভবনের পেছনে ১৫ থেকে ২০টি ব্যালট পেপার ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে এসব ব্যালট পেপার উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

 

এ বিষয়ে বরগুনা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজ হোসেন ব্যালট পেপার উদ্ধারের কথা স্বীকার করে বলেন, এসব ব্যালট পেপার ঠিক কোন কেন্দ্রের তা না মিলিয়ে কিছু বলা যাবে না।

এ বিষয়ে বরগুনা পৌরসভা নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আবদুল্লাহ এর সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

বুধবার ভোট গ্রহনের সময় নৌকা মার্কার মেয়র প্রার্থী কামরুল আসহান মহারাজসহ ১১ জন পুলিশের গুলিতে মারাত্মক আহত হয়। পুলিশের হিসাব মতে তিনটি ভোট কেন্দ্রে ১৭২ রাউন্ড গুলি ও ২৪ রাউন্ড টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে।

এরপর সব ভোট কেন্দ্র থেকে পুলিশ নৌকার এজেন্ট বের করে দেয়। একই সঙ্গে জেলা রিটার্নিং অফিসার মো. আবদুল্লাহ গগন মেমোরিয়াল হাই স্কুল, সরকারী বালিকা বিদ্যালয় ও সরকারী কলেজ ভোট কেন্দ্র বন্ধ করে দেয়।

দুই ঘন্টা ভোট কেন্দ্র তিনটি বন্ধ থাকার পর সরকারী বালিকা বিদ্যালয় ও সরকারী কলেজ ভোট কেন্দ্র চালু করেন। এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহাদাত হোসেনের এজেন্ট ছাড়া আর কারো এজেন্ট ছিল না।

নৌকা মার্কার মেয়র প্রার্থী কামরুল আহসান মহারাজ ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুঠোফোনে জানান, পুলিশ ও জেলা প্রশাসন তাদের লোক দিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহাদাতের পক্ষে ভোট কেটে বাক্সে ভরে দিয়েছেন। অপর দিকে নৌকার ভোট বাইরে ফেলে দিয়েছেন। সেই নৌকার ভোট এখন বিভিন্ন কেন্দ্রে পাওয়া যাচ্ছে। তিনি প্রহসনের নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন দাবী করছেন।