আদালতের আদেশে ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন স্থগিত

2

মির্জাগঞ্জ প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালী জেলার মির্জাগঞ্জ উপজেলার ঝাটিবুনিয়া ম.ই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যনেজিং কমিটির নির্বাচন শনিবার আদালতের আদেশে মোতাবেক স্থগিত করেছেন নির্বাচন প্রিজাইডিং অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন। ১৯৩৪ সালে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার পরে এবারে প্রথম বারের মতো নির্বাচনের দিন ছিল শনিবার। ওই এলাকার বশির উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি ১৮ আগস্ট সভাপতি,প্রধান শিক্ষক ও নির্বাচন প্রিজাইডিং অফিসারসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে অবিভাবক সদস্যেদের ব্যাপারে আদালতে মামলা দায়ের করলে ৩ দিনের মধ্যে কারন দর্শানেরা নোটিশ প্রদান করেন আদালত। নোটিশের কাগজ শনিবার সকাল সোয়া দশটার সময়ে বিদ্যালয়ে এসে পৌছলে নির্বাচন প্রিজাইডিং অফিসার ও উপজেলা মাধ্যমিক অফিসার মোঃ জাহাঙ্গাীর হোসেন নির্বাচন স্থাগিত করেন। এর আগে নির্চাচনের সকল আয়োজন সম্পন্ন করা হয়েছে বলে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানান। এ ঘটনায় ওই বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ও নির্বাচন প্রিজাইডিং অফিসার অবিভাবক এবং স্থানীয় লোকজনের তোপের মুখে পড়েন তারা। প্রিজাইডিং অফিসার চলে গেলেও প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয় ত্যাগ করতে হয়েছে পুলিশ পাহাড়ায়। অবিভাবকরা বলেন,বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে এবারের একটি সুষ্ঠু নির্বাচন হবে এ আশায় সকল ছাত্র অবিভাবকরা উৎসব মুখর পরিবেশে ভোট প্রদানের জন্য উপস্থিত হয়েছিলেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও নির্বাচন প্রিজাইডিং অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের অনিয়ম ও দূর্নীতির কারনে নির্বাচন ভূন্ডল হয়েছে। তাদের কারনে বিদ্যলিয়টি পুরানো ঐতিহ্য হারাতে বসেছে এবং এ বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি দেবার জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু নির্বাচন এবারের হলো না। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবদুস সালাম এর সত্যতা স্বীকার করে বলেন,আদালতে একটি মামলা দায়ের করার কারনে নির্বাচন স্থাগিত করা হয়েছে এবং আমি সহ মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসাকে আসামী করা হয়েছে। আদালতের নিদের্শ অমান্যে করে তো নির্বাচন দিতে পারি না।

প্রিজাইডিং অফিসার ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন এক নোটিশে উলে¬খ করে বলেন, নির্বাচন বিষয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আদালত আমাদেরে নির্বাচন বিষয়ে কারন দর্শাইবার নোটিশ প্রদান করেছেন। তাই নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে।