আপার সাথে সব খুইল্লা কইছি

3

কে এম সোহেল ,আমতলী প্রতিনিধিঃ বরগুনার আমতলী উপজেলার আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এটু আই প্রকল্পের আওতায় উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিস আমতলীর মাধ্যমে  নব-দম্পতি ও গভবর্তী মায়েদের মোবাইলের মাধ্যমে সেবা প্রদান করা হচ্ছে । এর ফলে এলাকার লোকজন পরিবার পরিকল্পনা সর্ম্পকিত সকল সেব পাচ্ছে। এই প্রোগ্রাম চালুর ফলে এলাকায় মাতৃমৃত্যুর হার কমে যাচ্ছে ও অ-পরিকল্পিত গর্ভধারন কমে যাবে বলে বিজ্ঞমহল মনে করছে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে সর্বপ্রথম গ্রামে গ্রামে ঘুরে গর্ভবর্তী মায়েদের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করা হয়।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক , উপশহকারী কমিনিউটি মেডিকেল অফিসার,পরিবার কল্যান সহকারী, পরিবার কল্যান পরিদর্শিকারা এলাকায় গিয়ে এ নাম্বার গুলো সংগ্রহ করে নিয়মিত খোজ খবর রাখেন এসব মায়েদের । এর ফলে এসব মায়েদের কোন সমস্যা হলে তাৎক্ষনিক ভাবে সমাধানের পরামর্শ দেয়া হয় ।

আরপাঙ্গাশিয়া গ্রামের মো. খবির মিয়ার স্ত্রী মোসাঃ মমতাজ বেগম বলেন “একদিন দুপুর থেকে আমার একটা সমস্যা দেহা দেছে । বিকালে হটাৎ করে পাঁচটার সময় আপায় মোরে মোবাইল দিয়া কইছে মমতাজ তোমার কোন সমস্যা আছে ।আমি মোবাইলে আপার সাথে সব খুইল্লা কইছি ।

আপায় আবার মোরে মোবইলে যে রহম বুদ্দি (পরামর্শ) দেছে আমি হেই রহম ওষুধ বড়ি খাইছি ও আপার কথামত চলাফেরা করছি।নিরাপদে একটি সুস্থ সুন্দর   সন্তান জন্ম দিতে পারছি। আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জি এম দেলওযার হোসেন  আরপাঙ্গাশিয়া পরিরবার কল্যান কেন্দ্র পরিদর্শন করতে গিয়ে বলেন  এ প্রকল্পর মাধ্যমে এলাকার গর্ভবর্তী মায়েরা উপকৃত হবে।

এ প্রকল্পের সম্ময়কারী উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. ইলিয়াস খান রানা জানান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বার্হী অফিসার মহোদ্বয় কার্যক্রম নিয়মিত পরিদর্শন করছেন।