আমতলীতে ওয়াকফ এষ্টেটের জমি দখল

1

কে এম সোহেল, আমতলী প্রতিনিধিঃ বরগুনার আমতলী পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডে ওয়াকফ এষ্টেটের জমি দখল করে পাকা স্থাপনা নির্মানের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন   ইসি ৮৫৬৬ জব্বার আলী দফাদার ওয়াকফ এষ্টেটের পক্ষে মো. রুহুল আমিন দুলাল।  মামলা সূত্রে জানান যায়.  আমতলী পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের খোন্তাকাটাস্থ জে এল নং ৩০ নং চাওড়া মৌজার খতিয়ান নং ১৬০ এর ৮৮৯ ও ৮৯০ ভুক্ত জমি সম্পত্তির পুকুর পার দখল করে পাকা স্থাপনা নির্মান করতেছেন   মো. আপানুর , মো.মতিয়ার রহমান , হোসনেয়ারা , বিলকিস বেগম, হেনা বেগম, ডলি বেগম,  মো. শামীম প্রমূখরা ।

এ ঘটনায় ৪ এপ্রিল রুহুল আমিন দুলাল বাদী হয়ে মো. আপানুর , মো.মতিয়ার রহমান , হোসনেয়ারা , বিলকিস বেগম, হেনা বেগম, ডলি বেগম,  মো. শামীন কে আসামী করে  আমতলী থানায় মামলা দায়ের করেন।  মামলা দায়ের করার পর ও  উল্লেখীত ভূমিতে পাকা স্থাপনার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

অপর দিকে ২৪ এপ্রিল বরগুনার রাজস্ব মুন্সী খানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা স্বক্ষরিত এক নোটিশে আঃ রাজ্জাক ওরফে মতি ,  শামীম , শহিদুল ইসলাম, নাজির আহমেদ , সামসুল আলম , মনিরুল ইসলাম, আজিজ প্যাদা , মাহিন প্যাদা , ফাতেমা বেগম , আকলিমা বেগম , জাকিয়া বেগম, আঃ শহিদ , আছমা বেগম কে   অবৈধ ভাবে পাকা স্থাপনা নির্মান বন্ধ করার জন্য নোটিশ প্রদান করেন।  এবং এ বিষয়ে ১৫ মে সোমবার  শুনানীর দিন  ধার্য করেন।কিন্তু ২৫ এপ্রিল সকালে সকল নির্দেশ অমান্য করে উল্লেখীত ব্যক্তিরা  উক্ত  ভূমিতে পাকা স্থাপনা নির্মানের কাজ  অব্যাহত রেখেছেন।

এ বিষয় শামীম , শহিদুল ইসলাম, নাজির আহমেদ , সামসুল আলম , মনিরুল ইসলাম, আজিজ প্যাদা , মাহিন প্যাদা কোন কথা বলতে রাজী হয়নি।

এ বিষয় বরগুনা জেলা প্রশাসক ডঃমুহাঃ বশিরুল আলম  বলেন অবৈধ দখলকারীদের বিরুদ্ধে   আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।