আমতলীতে বাতিল হওয়া রেকর্ড দিয়ে জমির প্রকৃত ওয়ারিশদের হয়রানি করার অভিযোগ

1

আমতলী প্রতিনিধিঃ বরগুনার আমতলীতে বাতিল হওয়া রেকর্ড দিয়ে জমির প্রকৃত মালিকদের হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে একটি প্রভাবশালী ভূমি দস্যু দলের বিরুদ্ধে।জানা গেছে, আমতলী থানার অন্তর্গত ৩০ নং চাওড়া মৌজার এস,এ ২০০ নং খতিয়ানের ৩ আনা ৫ গন্ডা ১ করা ১ ক্রান্তি ১১ তিল অংশের রেকর্ডীয় মালিক ছফুরা খাতুন, স্বামী- স্বরুপ আলী খা। উক্ত খতিয়ানের একটি রেকর্ড রয়েছে একই গ্রামের জনৈক ফজলু খলিফার কাছে যেখানে ছফুরা খাতুনের স্বামীর স্থলে পিতার নাম লেখা রয়েছে স্বরূপ আলী খা। পরে আমতলী ভূমি অফিস থেকে ফজলু খলিফার কাছে থাকা রেকর্ডটি বাতিল করে ছফুরা খাতুনের পিতার স্থলে স্বামী- স্বরুপ আলী খা নামে রেকর্ড সংশোধন করা হয়েছে। বর্তমানে ফজলু খলিফা তার কাছে থাকা বাতিল রেকর্ড দিয়ে ছফুরা বেগমের প্রকৃত ওয়ারিশদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে আসছেন।

উক্ত বাতিল রেকর্ড দিয়ে ফজলু খলিফা গত ১৮/০৬/২০১৪ তারিখ আমতলী সিনিয়ন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ছফুরা বেগমের ১৩ জন ওয়ারিশের নামে একটি সিআর মামলা দায়ের করেন, যার নম্বর ২১৪/১৪। উক্ত মামলায় ছফুরা বেগমের ৭ জন নারী ও ৬ জন পুরুষ ওয়ারিশ ১ মাস ১৩ দিন হাজতবাস করেন, যাদের মধ্যে অধিকাংশের বয়ষই সত্তোরোর্ধ। বর্তমানে ছফুরা বেগমের ওয়ারিশগন মারাত্বক নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান তার ওয়ারিশ ফরিদা বেগম। তিনি বলেন, “ফজলু খলিফার ভয়ে আমরা আমাদের বাড়িতে থাকতে পারছি না।” ফরিদা বেগম আরও বলেন, “ফজলু খলিফা প্রতিনিয়ত আমাদেরকে আমাদের বসত বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার হুমকি দিয়ে আসছেন।” এ ব্যাপারে ফজলু খলিফার কাছে জানতে চাইলে তিনি উক্ত অভিযোগ অস্বীকার করেন এবং তার কাছে থাকা রেকর্ড সঠিক বলে দাবি করেন।

বর্তমানে ছফুরা বেগমের ওয়ারিশগন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে তারা প্রশাসনের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।