আমতলীতে ভূমি  জরিপ  কর্মকর্তাদের  ঘুষ বানিজ্যর অভিযোগ জরিপ বন্ধের দাবী

0

 

কে এম সোহেল ,আমতলী প্রতিনিধি ঃ বরগুনার আমতলী উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নে ভূমি জরিপ কর্মকর্তাদের অনিয়ম ,দূর্নীতি ঘুষ দূনীর্তির  অভিযোগ পাওয়া গেছে।স্থানীয়রা জানান, ২০০৭ সালের ভয়াবহ সিডর ও আয়লায়  ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার গুলোর অনেক কাগজপত্র নষ্ট হয়ে গেছে।যার কারনে জরিপ কারীদের চাহিদা মোতাবেক কাগজপত্র দিতে না পারায়  তাদের মোটা অংকের ঘুষ দিতে হয়।

যারা ঘুষ দিতে পারেনা তাদের বিভিন্ন রকম হয়রানীর স্বিকার হতে হয়। পূর্ব চুনাখালীর মোতালেব গাজীর কাছ থেকে জরীপ কারীরা ১ লাখ টাকা ঘূষ নিয়েছেন । রায়বালার শহিদ সিকদার  ২০ হাজার টাকা ,চরখালীর মকবুল মাষ্টার ৫০ হাজার টাকা , পূর্ব চুনাখালীর বাবুল মিয়ার  ৩০ হাজার টাকা  জরীপ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান ও তার সহকর্মীদের ঘুষ দিতে  হয়েছে বলে ভুক্তভোগিরা জানান। জনসাধারন তাদের নষ্ট হয়ে যাওয়া কাগজপত্র প্রস্তুত করতে সাময়িক ভাবে জরিপ বন্ধের দাবী জানান  ।

এলাকার নজরুল মাদবর জানান, ঘুষ দূর্নীতি বন্ধ  সিডরে হারিয়ে ও  নষ্ট হয়ে যাওয়া কাগজপত্র সংগ্রহের জন্য সাময়িকভাবে জরিপ বন্ধ না করলে জমির মালিকদের মরন ছাড়া উপায় নাই। উল্লেখ্য গত ৫জুন ১৬ ইং রোববার সকালে স্থানীয় মহিষকাটা বাজারে বরিশাল-পটুয়াখালী-আমতলী সড়কে স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত  পাঁচ শতাধিক জনগন  জরীপ বন্ধও ঘূষ দূর্নীতির প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি  পালন করেন।   মানববন্ধন শেষে স্থানীয়রা এ ব্যপারে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বরগুনা জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছিলেন ।ভূক্তভোগিরা  অবিলম্বে কুকুয়া ইউনিয়নে সাময়িক ভাবে ভূমি জরীপ বন্ধের দাবী জানান।