আমতলীতে সংঘর্ষ, ৫ জন আহত

1

কে এম সোহেল ,আমতলী প্রতিনিধি ঃ আমতলী উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ককে সম্মান করে কথা না বলায় একই সংগঠনের নেতা কর্মীদের সাথে সংঘর্ষে ৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের ২ জনকে আমতলী ও ১ জনকে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আমতলী সরকারী ডিগ্রী কলেজ গেট এলাকায়।

প্রত্যাক্ষ দর্শীরা জানান, সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আমতলী উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক নুর জামাল (৩০) আমতলী সরকারী কলেজে ঢোকার প্রধান গেটে দাঁড়ানো ছিল। এসময় বাহির থেকে একই সংগঠনের দুজন কম বয়সী নেতা প্রিন্স ও সবুজ ভিতরে ঢোকার জন্য নুর জামালকে নাম ধরে ডেকে গেট থেকে সরে জেতে বলে। এনিয়ে তাদের মধ্যে প্রথমে বাকবিতন্ড হয়। বাক বিতন্ডার এক পর্যায়ে লাঠিসোঠা নিয়ে তারা সংঘর্ষে জরিয়ে পড়ে। সংঘর্ষে নুর জামাল (৩০), যুবলীগ কর্মী মাসুদ (৪০) ও ছাত্রলীগ নেতা প্রিন্স (২৩), শহীদ (১৯) ও সবুজ (২১) আহত হন। আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় নুর জামাল ও মাসুদকে আমতলী হাসপাতালে ও প্রিন্সকে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শহীদ ও সবুজ পটুয়াখালী হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।  আমতলী হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসা সহকারী শাহীনা সুলতানা জানান, নুরজামালের মাথায়, মুখ মন্ডলে  ও হাতে পিঠে এবং মাসুদের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পুলক চন্দ্র রায় জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এখনো মামলা হয়নি, মামলা হলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।