আমতলীতে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি

2

আমতলী  প্রতিনিধি ঃ আমতলীতে চলছে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি। সপ্তাহ খানেক ধরে এ চাঁদা বাজির কারনে মানুষ অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। বরগুনায় শিল্প ও বানিজ্য মেলায় আসা ‘দি কাঞ্চন সার্কাস লি:’ এর একটি হাতি দিয়ে মাহুত প্রতিদিন আমতলী শহরের বিভিন্ন দোকানে গিয়ে ১০ টাকা থেকে ২০ টাকা করে চাঁদা তুলছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বরগুনায় মাসাধিকাল ধরে  চেম্বার অফ কমার্সের আয়োজনে বানিজ্য মেলা চলছে। মেলায় আনন্দ বিনোদনের জন্য আনা হয়েছে দুটি হাতি সম্বলিত ‘দি কাঞ্চন সার্কাস দল’। সার্কাস দলের হাতি গুলো রাতের বেলায় মেলায় আগত মানুষের বিভিন্ন ভাবে খেলা  দেখিয়ে আনন্দ দেয়। কিন্তু দিনের বেলায় এদের দিয়ে চলে চাঁদাবাজি। গত সপ্তাহ খানেক ধরে সকাল হলেই মাহুত বিধান কৃষ্ণ একটি হাতি নিয়ে চলে আসেন আমতলী শহরে। শহরের প্রতিটি দোকনে গিয়ে  হাতি মাহুতের ইশারায় দোকানের মধ্যে আকস্মিক শুর ঢুকিয়ে ছাঁদা দাবী করেন। দোকানি ভয়ে জরোসড়ো হয়ে ১০ থেকে ২০টাকা করে চাঁদা দিয়ে হাতি বিদায় করেন। এভাবে প্রতিদিন শহরের বিভিন্ন দোকানে গিয়ে হাজার হাজার টাকা চাঁদা তোলেন। অনেক সময় ব্যস্ত শহরের প্রধান সড়ক দখল করে হাতির হাটা চলার কারনে পথ চারী নারী পুরুষ সবাই ভীত Í হয়ে পড়েন। দেখা গেছে শহরের একে স্কুল সড়কে হাতি দিয়ে চাঁদা তুলছে মাহুত বিধান কৃষ্ণ। তখন সড়ক দিয়ে চলাচলকারী বিভিন্ন লোকজন ভয়ে জরোসড় হয়ে সড়কের পাশে দাড়িয়ে ছিলেন। আমতলী শহরের ফল ব্যবসায়ী জাকির হোসেন বলেন, এভাবে হাতি দিয়ে ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজি মোটেই কাম্য নয়। এভাবে চাঁদাবাজি বন্দের দাবি জানিয়েছেন আমতলী শহরের  বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা।