আসন্ন ইউপি নির্বাচন-২০১৬ আমতলীতে কদর বেড়েছে দলীয় তৃণমূল নেতাদের

0

 

আমতলী প্রতিনিধি : ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা না হওয়া স্বত্ত্বেও আমতলী উপজেলায়  নির্বাচনের গুঞ্জনে মাঠপর্যায়ের দলীয় নেতাকর্মীদের কদর বেড়েছে। সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের কাছে ধর্না দিচ্ছেন। ইউনিয়নের বিভিন্ন চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সভা সমাবেশ করছে। কোথাও কোথাও ইউনিয়ন কমিটি’র সভায় দলীয় একক প্রার্থী ঘোষনা করেছে।

আমতলী উপজেলায় ৭টি ইউনিয়ন। সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ওয়ার্ড পর্যায়ের দলীয় সভাপতি ও সম্পাদকের কাছ থেকে সমর্থন আদায়ের জন্য বাড়ী বাড়ী ছুটছেন। গত শনিবার বিকেলে গুলিশাখালী ইউনিয়ন আ’লীগের বিশেষ সভা ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি এড. নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ সভায় ওয়ার্ড কমিটি’র সভাপতি ও সম্পাদকরা যোগ দেন। সভায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে গুলিশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান এড. নুরুল ইসলামকে আ’লীগের একক প্রার্থীর হিসেবে ঘোষনা করা হয়। আ’লীগ নেতা আঃ লতিফ শিকদার জানান কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুসারে ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকদের নিয়ে ইউনিয়ন কমিটির সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

আঠারগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর সোনাখালী গ্রামের ভোটার সোহেল রানা জানান নির্বাচনের গুঞ্জনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের কাছে সাধারণ ভোটার ও দলীয় নেতাকর্মীদের কদর বেড়েছে।

কুকুয়া ইউনিয়নের আ’লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী ইঞ্জিনিয়ার মো. শহীদুল ইসলাম স্বপন জানান নেতা-কর্মীদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে দলীয় সমর্থন পাওয়ার চেষ্টা করছি।

আমতলী উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হায়াতুজ্জামান মিরাজ জানান, কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে আমতলীর সকল কমিটি স্থগিত হয়ে আছে। এ কারনে এখনো ইউপি নির্বাচন বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

ন্যাপ উপজেলা কমিটি’র আহবায়ক খাঁন মতিয়ার রহমান জানান, তফসিল ঘোষনার পরে দলীয় প্রার্থীর নাম জানাবো।

ইসলামিক আন্দোলন বাংলাদেশ আমতলী উপজেলা কমিটির সভাপতি শাহ আলম তালুকদার জানান নির্বাচনে অংশ গ্রহনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।

আমতলী উপজেলা আ’লীগ সভাপতি জিএম দেলওয়ার হোসেন বলেন কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুসারে ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা কমিটি’র সভাপতি ও সম্পাদকগণ সভা করে দলীয় মনোনায়নের জন্য সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।