এফপিএবি পটুয়াখালী শাখার কার্যকরি কমিটির নির্বাচন সুষ্ঠু নির্বাচন দাবি ভোটারদের

2

বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমিতি (এফপিএবি) পটুয়াখালী শাখার কার্যকরি কমিটির ২০১৫-১৮ মেয়াদে নির্বাচনে ১৯ পদের মধ্যে ১৭ পদে প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত। শুধুমাত্র অবৈতনিক কোষাধ্যক্ষ পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২ জন প্রাথী নাসরিন মোজাম্মেল এমা ও এডভোকেট মো. সোহরাব হোসেন। শনিবার এফপিএবি মিলনায়তনে সাধারন সভায় এ পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। জাতীয় কাউন্সিলর পদটি খালি রয়েছে। ১৭ পদের প্রতিটিতে একটি করে মনোনয়নপত্র জমা পড়ায় নির্বাচন কমিশন তাদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করে।

এফপিএবি‘র পটুয়াখালী শাখার প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এ পর্যন্ত কার্যকরি কমিটি নির্বাচনে সমঝোতার ভিত্তিতে গঠিত হলেও এবারে কোষাধ্যক্ষ পদে ২ জন প্রার্থী থাকায় এ পদে ভোটাভোটি হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ভোটার জানিয়েছেন তারা এবারে ভোট প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন এবং সরাসরি গোপন ব্যালটের মাধ্যমে তারা এ পদে ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে চান। তারা এজন্য নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

৩১ অক্টোবর এফপিএবি কার্যালয়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ২৬৪ জন।

সভাপতি পদে মোসাম্মাৎ মাহেনুর বেগম (লাকি), সহ-সভাপতি গাজী আলী হোসেন অবৈতনিক সাধারন সম্পাদক পদে মো. নুরেজ্জামান খান, সহ-সাধারন সম্পাদক পদে, মিসেস কিসমত আরা নাঈম, এডভোকেসি পদে পুষ্পরাণী সাহা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা জাহানারা হারুন, মেডিকেল সম্পাদক অধ্যাপিকা সুনিতী সুধা দাস, যুব সম্পাদক সাবিহা ইয়াসমিন স্বর্ণা, যুব সদস্য সুলতানা রুপা ও ওমর খৈয়াম, সদস্য এডভোকেট আলমগীর কবির ও রাবেয়া ইসলাম, ফেরদৌসী বেগম, লুবনা ইসলাম, জাতীয় কাউন্সিলর তসলিম সিকদার ও এডভোকেট নার্গিস আক্তার, জাতীয় যুব কাউন্সিলর প্রফেসর লুৎফুন্নেসা ও মনিকা ঘোষাল মৌ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার এডভোকেট মো. শহীদুল ইসলাম মৃধা বলেন, ভোট গ্রহনের সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। ব্যালট পেপার প্রস্তুত, নির্বাচন অফিস থেকে ভোট বাক্স আনয়ন, সিল,কালি সংগ্রহসহ, বুধ তৈরিসহ সামগ্রিক প্রস্তুততি গ্রহন করা হয়েছে।

#