এবার হরিণ হত্যা মামলা থেকেও খালাস সালমান

1

তুমুল আলোচিত ‘হিট এন্ড রান’ মামলায় মানুষ মারার অভিযোগ থেকে খালাস পেয়েছিলেন গত বছরেই, আর এবার হরিণ হত্যা মামলা থেকেও বেকসুর খালাস পেলেন বলিউডের ‘সুলতান’ খ্যাত সুপারস্টার সালমান খান।

বহুদিন থেকেই হরিণ হত্যা মামলাটি ঝুলে ছিল সুপারস্টার সালমানের বিরুদ্ধে। অবশেষে সব শুনানি শেষে ২৫ জুলাই আদালত রায় ঘোষণার দিন ধার্য করে দেয়। অতঃপর রাজস্থান আদালত ২৫ জুলাই সোমবার হরিণ হত্যা মামলা থেকে সালমানের ‍বিরুদ্ধে হওয়া মামলা থেকে তাকে বেকসুর খালাস দেন।
‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ খ্যাত নির্মাতা সুরজ বারজাত্য’র ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিং চলাকালীন ওয়াইল্ড লাইফ অ্যাক্ট ভঙ্গের অভিযোগ ওঠে সালমান খানের বিরুদ্ধে। বলা হয়, তিনি যোধপুরের কাছে একটি জায়গায় কৃষ্ণসার হত্যা করেছেন। সালমান ছাড়াও সাইফ আলি খান, সোনালি বিন্দ্রে, টাবু ও নীলমের উপরও চোরাশিকারের অভিযোগ ওঠে। তবে সালমানের উপর মামলাটি বেশ আলোচিত হয়।
হরিণ হত্যা বা কৃষ্ণসার হত্যা মামলার অভিযোগে এই মামলায় নিম্ন আদালত সালমানকে আগেই সাজা শুনিয়েছিল। কিন্তু সালমান নিম্ন আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে আপিল করেন। এরপর ২০০৭ সালে সালমানকে পাঁচ বছর কারাদণ্ডের আদেশ শোনায় রাজস্থান হাইকোর্ট। এই মামলায় ছ’দিন সালমানকে যোধপুর কেন্দ্রীয় জেলেও কাটাতে হয়।
কিন্তু তারপর হাইকোর্ট সালমানের বিরুদ্ধে আসা চার্জগুলি আর্ম অ্যাক্টের আওতাভুক্ত করে। ২০১২ সালে আবার হাইকোর্ট সালমানের বিরুদ্ধে চার্জ আনে। নতুন এই চার্জ ওয়াইল্ডলাইফ প্রোটেকশন অ্যাক্ট সেকশন ৯/৫১ ধারায় আনা হয়েছিল। বলা হয়েছিল, কৃষ্ণসার সংরক্ষিত প্রাণী। তাই এই হরিণ হত্যা করা আইনত অপরাধ।