এয়ারটেল কোঃ এস আর সহ সিম জালিয়াতি চক্রের  তিন সদস্যকে আটক করে ডিবি পুলিশ

6

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ পটুয়াখালীর গোয়েন্দা শাখার ডিবি পুলিশ গতরাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সরকারি মহিলা কলেজ সংগলœ একটি ছাত্রাবাসে অভিযান চালিয়ে বায়োমেট্রিক পদ্ধতির  মোবাইল সিম কার্ড জালিয়াতি চক্রের তিন সদস্যকে আটক করেছে পটুয়াখালীর ডিবি পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, এয়ারটেলের মলয় দাস(২৫)টেলিটক কোম্পানীর বিক্রয় প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম(২৫), ও চক্রের সদস্য দালাল মোমেন খান(২৩)।

পটুয়াখালী গোয়েন্দা পুলিশের ওসি খন্দকার জাকির হোসেন জানান, গোপন সংবাদে জানা গেছে বায়োমেট্রক পদ্ধতিতে সিম রেজিস্ট্রেশনের জালিয়াতি চক্রের সদস্যরা অপরাধীদের সিম সরবরাহ করছে। এমনকি তারা নামে বেনামে বায়োমেট্রিক করা সিম বিক্রি করে চলছে। পুলিশ আরও জানায়, সিম রেজিষ্ট্রশন চক্রের মুল হোতা মলয় এয়ারটেল কোম্পানির একজন এস আর। কিভাবে  মোবাইলের সিম রেজিষ্ট্রশন করে  কোম্পানির মারফত শিখে  সে আরো দুইজনকে বায়োমেটিক পদ্বতিতে সিম রেজিষ্ট্রশন করান শিখিয়ে  মোবাইল সিম রেজিস্ট্রশন করে বিভিন্ন অপরাধ করে আসছিল। তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমান সিম উদ্ধার করেছে ডিবি পুলিশ।

মলয় কুমার ও  সাইফুলের বাড়ি বাউফল উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের মাদবপুর গ্রামে এবং মোমেন খান এর বাড়ি গলাচিপা উপজেলার ডাকুয়া ইউনিয়নে বলে ডিবি পুলিশ জানায়।