আমতলীতে চেয়ারম্যান প্রার্থী জেলহাজতে

2

 

আমতলী প্রতিনিধি ঃ আমতলীর আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দী দুই স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে শনিবার রাতের সংঘর্ষের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা হয়। একটি মামলার প্রধান আসামী ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী একেএম নুরুল হক বুধবার সকালে আমতলীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হলে আদালতের বিঞ্জ বিচারক তার জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আমতলীর আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের ঘোপখালী বাজারে গত শনিবার সন্ধ্যায় প্রতিদ্বন্দি দুই স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ঘোড়া প্রতীকের একেএম নুরুল হক ও আনারস প্রতীকের প্রার্থী মো: আবুল কালাম আজাদের কর্মী ও সমর্থদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের ১২ জন কর্মী আহত হয়। আহতের ঘটনায় নুরুল হকের পক্ষে পরের দিন মো: দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে ৩২ জনকে আসামী করে এবং  মো: আবুল কালাম আজাদের পক্ষে মো: নজরুল ইসলাম মৃধা বাদী হয়ে ২৯ জনকে আসামী করে আমতলী থানায় পৃথক ২টি মামলা করেন। আজাদের পক্ষের মামলার প্রধান আসামী ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী একেএম নুরল হক ২৯ জন আসামীর মধ্যে ২০জনকে নিয়ে বুধবার দুপুর ২টায়  আমতলীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হলে আদালতের সিনিয়র বিজ্ঞ বিচারক বৈজয়ন্ত বিশ্বাস দীর্ঘ শুনানি শেষে প্রধান আসামী একেএম নুরুল হকের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাটানোর নির্দেশ দেন অন্য আসামীদের জামিন মঞ্জুর করেন।