কলাপাড়ার নি¤œাঞ্চালন ও চরাঞ্চল ৪/৫ ফুট পানিতে প্লাবিত

4

 

সোলায়মান পিন্টু,কলাপাড়া প্রতিনিধিঃ পটুয়খালীর কলাপাড়ায় লঘুচাপ ও আমাবশ্যার প্রভাবে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৪/৫ ফুট পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বেরি বাধেঁর বাহিরের মানুষের জীবন যাত্রা ও গ্রামাঞ্চলসহ চরাঞ্চলের কৃষি কাজ চরম ভাবে ব্যহত হচ্ছে।

অস্বাভাবিক জোয়ারের পানিতে চরাঞ্চল এবং বেরী বাঁেধর বাইরের বিস্তীর্ন নি¤œাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। দু’দফা জোয়ারের প্লাবনে পানি বন্দী হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে বেরি বাঁধ বিধ্ব্স্ত  উপজেলার চম্পাপুর, মহিপুর, লালুয়া ও ধানখালী গ্রামের মানুষ। প্লাবিত হয়ে আছে সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটার বিস্তৃর্ন বেলাভূমি ও বিভিন্ন খেয়াঘাট।

গভীর সমুদ্রে সঞ্চালনশীল মেঘমালা তৈরি হওয়ার কারনে বাংলাদেশ ও পশ্চিম বঙ্গের উপড় একটি লঘুচাপ অবস্থান করছে। এর ফলে থেমে থেমে ভারি থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। গত ৪৮ ঘন্টায় (০১.৭.২০১৬ইং সকাল ৬টা থেকে) পটুয়াখালী জেলায় ৮৪ মি.লি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে পটুয়াখালী আবহাওয়া অফিস।

অবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, সঞ্চালনশীল মেঘমালার ফলে সৃষ্ট লঘুচাপের প্রভাব কেটে না যাওয়া পর্যন্ত আবহাওয়া বর্তমান অবস্থায় বিরাজমান থাকবে। আর জোয়ারের পানির উচ্চতা আরো ৩/৪দিন থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।