কলাপাড়ায় অপহরনের আধ ঘন্টা পর অপহৃত শিশু উদ্ধার: আটক ২

1

গোফরান পলাশ, কলাপাড়া বিশেষ প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় অপহরনের আধঘন্টা পর অপহৃত দ্বিতীয় শ্রেনীর শিশু শিক্ষার্থী স্বর্না (৮) কে উদ্ধার করা হয়েছে। উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের লোন্দা গ্রামে রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে  এ ঘটনা ঘটে। স্বর্না ওই গ্রামের স্বপন হাওলাদারের মেয়ে। এ ঘটনায় অপহরনকারী দলের দুই সদস্য  মোসা. খাদিজা বেগম (৪২) ও মারিয়া বেগম (২২) কে জনতা আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লোন্দা হাসেম আলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেনীর ছাত্রী স্বর্না প্রতিদিনের মত ক্লাশ করার জন্য স্কুলে আসে।  স্কুল শুরুর আগে বোখরা পরিধান করা মোটর সাইকেলে আসা শিশু অপহরনকারী চক্রের ওই দুই মহিলা সদস্য স্বর্নাকে প্রথমে বিস্কুট খাওয়ার প্রলোভন দেখায়। এতে স্বর্না রাজী না হওয়ায় তাদের বাড়ীতে অতিথি আসছে বলে তাকে মোটর সাইকেলে উঠিয়ে নিয়ে যায়।  অপহরনকারীরা স্বর্নাদের বাড়ী অতিক্রম করে যাওয়ার সময় মোটর সাইকেলটি না থামানোর কারনে স্বর্না চিৎকার করে। তার চিৎকারে চারিদিক থেকে লোকজন এগিয়ে আসলে অপহরনকারীরা স্বর্নাকে লোন্দা খলিল মৃধার বাড়ীতে নিয়ে যায়। স্থানীয়রা স্বর্নাকে ওই বাড়ী  থেকে  উদ্ধার করে।  এসময় উত্তেজিত জনতা অপহরনকারী দু’জনকে গন-ধোলাই দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করে। অপহরনকারী দলের সদস্য খাদিজার বাড়ী নাটোর সদরে এবং মারিয়ার বাড়ী কলাপাড়ার ধানখালী গ্রামে বলে জানা গেছে।

শিশু স্বর্না জানায়, বোখরা পরিধান করা মহিলা দু’জন তাকে প্রথম বিস্কুট খাওয়ার জন্য বলে।  এতে সে রাজী না হওয়ায় তাদের বাড়ীতে অতিথি এসেছে বলে তাকে জোড় করে মোটর সাইকেলে তুলে নেয়।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিএম শাহনেওয়াজ জানান, মহিলা দু’জন থানায় আটক রয়েছে। এদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।