কলাপাড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

1

কলাপাড়া প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী গাজী আক্কাস উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, রিটার্নিং কর্মকর্তা, নির্বাচন কমিশন এবং আইনশৃংখলার দায়িত্বে নিয়োজিত বাহিনী কেমন যেন নীরব দর্শকের ভূমিকায়। একের পর এক ঘটনা ঘটেই চলছে, অথচ তারা কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেনা। এ জন্য তিনি আ. লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ মশিউর রহমান শিমুর সন্ত্রাসী কর্মকান্ডকে দায়ি করেন।

গতকাল রবিবার বেলা ১১ টায় কলাপাড়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন অভিযোগ করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাজী হুমায়ুন সিকদার, পৌর বিএনপির সভাপতি উপাধ্যক্ষ নুর-বাহাদুর, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক গাজী মোহাম্মদ ফারুক, উপজেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক বশির উদ্দিন তালুকদার প্রমুখ।

গাজী আক্কাস উদ্দিন লিখিত বক্তব্যে বলেন, আ. লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ মশিউর রহমানের সমর্থক ঝুনা কালামসহ অপর সন্ত্রাসী বাহিনীর কর্মকান্ডে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারছিনা। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শিমু মিরাসহ তাঁর পালিত সন্ত্রাসী বাহিনী বিএনপির সমর্থক-কর্মীদের ভীত সন্ত্রস্ত করে তুলেছে। গত কয়েকদিনে আমি এবং আমার সমর্থকরা প্রচারকালে অন্তত চার দফা হামলার শিকার হয়েছি।লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, আমার প্রচার মাইক পর্যন্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পোষ্টার ছিড়ে ফেলা হয়েছে। কোথাও কোনো গণসংযোগ করতে পারছিনা। এসব নিয়ে এর আগে চার দফা লিখিত অভিযোগ দিয়েও এর কোনো প্রতিকার পাইনি।

আ. লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ মশিউর রহমান শিমু এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার গণজোয়ার দেখে বিএনপির প্রার্থী আমার বিরুদ্ধে নানা ধরণের অভিযোগ করছে। তাঁরা নিজেরাই এসব ঘটনা ঘটিয়ে আমার বিরুদ্ধে বলছে। আমার কোনো সমর্থক এর সঙ্গে জড়িত নয়।

টিয়াখালী ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. ইমরুল ইসলাম বলেন, আমি বিএনপি প্রার্থীর দুটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ইতিমধ্যে ওই অভিযোগের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে বলা হয়েছে।