কলাপাড়া খেয়া ডুবির ঘটনায় শিশুসহ নিখোঁজ ০৪

1

02সোলায়মান পিন্টু, কলাপাড়াঃ পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ইট বোঝাই ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ন-১৪-১৮১৯) ফেরিতে উঠতে গিয়ে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেরির সামনে ভিড়ানো খেয়া নৌকার ওপরে উঠে যাওয়ায় যাত্রীসহ নৌকা ও ট্রাকটি আন্ধারমানিক নদীতে নিমজ্জিত হয়েছে । রবিবার রাতে কলাপাড়া ফেরিঘাটে এ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। এতে অন্তত ১৫ জন যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে। এখন পর্যন্ত সামিয়া (৬), নিশাত (১০), আবদুল হালিম (৩০),বেলায়েত(৬০) নামের চারজন যাত্রীর কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। ডুবে যাওয়া ইট বোঝাই ট্রাকটি রোববার রাত পৌনে ১২ টার সময় হাইড্রোলিক রেকারের সাহায্যে আন্ধারমানিক নদীর তলদেশ থেকে উপরে তোলা হয়েছে। খেয়া নৌকাটি এক কিলেমিটার দুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। খেয়াটি আন্ধারমানিক নদীর উত্তর পার (কলাপাড়া) থেকে অন্তত একশ জনের মত যাত্রী বোঝাই করে দক্ষিন পার (নীলগঞ্জ) যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিল।

দূর্ঘটনায় আহত যাত্রীদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত যাত্রীরা হলেন মো. ইব্রাহিম হেসেন (৩৬), আবদুল বারেক (৩৫), মোহাম্মদ আলী (৪), ফেরদৌস হোসেন (৭), রুবী আক্তার (২৭), মনিকা (৩৫), রওশন আরা বেগম (৩৫), পারভিন বেগম (৩৭), হাজেরা বেগম (৩৫) , রঞ্জন (৩২), সেলিম (৩৫), জালাল রাঢ়ী (৭০) ও আকলিমা (৭০) ।

এদের মধ্যে মো. ইব্রাহিম হোসেন ও আবদুল বারেক এর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাঁদেরকে উদ্ধার করার সঙ্গে সঙ্গে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কলাপাড়া থানা পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে জানা গেছে, কলাপাড়া ফেরিঘাটে অপেক্ষায় থাকা ফেরিতে একটি ইট বোঝাই ট্রাক দ্রুত উঠতে গিয়ে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেরির সামনে ভিড়ানো খেয়া নৌকার ওপর উঠে যায়। ওই সময় খেয়া নৌকাটিতে একশ জনের মত যাত্রী ছিল। এসব যাত্রীরা আন্ধারমানিক নদীর নীলগঞ্জ পাড়ে যাওয়ার জন্য খেয়ায় উঠে অপেক্ষা করছিল। খেয়ার যাত্রীদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা দৌড়ে এসে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে।

আফতাব নামের স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, দূর্ঘটনাটি আমি নিজ চোখে দেখেছি। তখন আমি ফেরির উপরেই দাড়ানো ছিলাম। হঠাৎ দেখি একটি ইট বোঝাই ট্রাক দ্রুত গতিতে ফেরিতে উঠে গতি থামাতে ব্রেক করলে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে খেয়ার ওপরে উঠে যায়। সাথে সাথে ট্রাক ও যাত্রী বোঝাই খেয়াটি ডুবে যায়। ওই সময় ফেরির সামনে প্রতিরক্ষা রশি টানানো ছিলনা।

সোমবার দুপুরে কলাপাড়া ফেরিঘাটে গিয়ে দেখা গেছে, উৎসুক কয়েকশ মানুষ ভিড় করে আছে। এর মধ্যে নিখোঁজদের কয়েকজন স্বজনকেও পাওয়া গেল। আন্ধারমানিক নদীর পারের ফেরিঘাটে হারিয়ে যাওয়া স্বজনকে খুঁজে পাওয়ার আশায় তাঁরা অপেক্ষা করছে।

কলাপাড়া ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার মো. রেজাউল করিম সাংবাদিকদের বলেন, আমরা সোমবার সকাল ৮ টা থেকে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছি। ডুবুরির সহায়তায় আমরা একটি মোটর সাইকেল পানির নিচ থেকে তুলে আনতে পেরেছি এবং কিছু কাপড়, জ্যাকেট পাওয়া গেছে। আপাতত আমাদের উদ্ধার তৎপরতা বন্ধ রয়েছে, তবে টহল কার্যক্রম চলছে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, এ পর্যন্ত তিনজন নিখোঁজ রয়েছে বলে শুনেছি। আমাকে জানিয়ে স্থানীয়রা বিশেষ জাল তৈরি করে নিখোঁজদের উদ্ধারে চেষ্টা চালাচ্ছে।

###