কুয়াকাটায় অপহরণকৃত যতিন্দ্রনাথ ব্যাপারী ৭ মাসেও উদ্ধার হয়নি

4

 

মোঃ মনিরুল ইসলাম মহিপুর প্রতিনিধি ঃ কুয়াকাটায় জমা-জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে যতিন্দ্রনাথ ব্যাপারীকে অপহরণের অভিযোগ পাওয়া  গেছে। অভিযোগে জানা গেছে, গত ৮ ডিসেম্বর রাত সাড়ে দশটার দিকে মৎস্য বন্দর আলীপুরের সুইজগেটর ফার্নিচারের দোকান থেকে ডেকে নেয়, বিষ্ণু কর্মকার, ওসমান, আহসান, শহীদ, জালাল মাষ্টার ও ইউসুফ মুসুল্লীসহ আরো কয়েক জনে। গত ৭ মাস অতিবাহিত হলেও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। পরিবারে চলছে শোকের মাতম। এব্যাপারে মোকাম কলাপাড়া জুডিশিয়াল মেজিস্ট্রেট আদালতে অপহরণ মামলা করা হয়েছে। জগদিশ ব্যাপারী জানান, জে এল ৩৪ নং লতাচাপলী মৌজার আর এস ৭৪ খতিয়ানের ৯২৬, ৯২৬, ৯২৮, ৯৩০ সহ ১৭টি দাগের অংশ হইতে ৩ একর ৫৩ শতাংশ জমির মালিক তিনি ও তার ছোট ভাই অপহরণকৃত যতিন্দ্র নাথ ব্যাপারী। এর মধ্যে ২.৮২ একর জমি বিক্রি করে। পরবর্তী সাড়ে ৭০ শতাংশ জমিতে বসত ভিটায় শান্তিপূর্ন ভাবে বসবাস করে। ২০০১ সালে বি এন পি কর্তৃক নির্মম নির্যাতনের শিকার হয় এবং ঘর বাড়ি ভেঙ্গে নামিয়ে দেয়। এব্যাপারে পটুয়াখালী বিজ্ঞ যুগ্ম জেলা জজ ১ম আদালতে মামলা করা হয়েছে। মামলা নং-২২৯/১৫। ওই মামলা উত্তলোনের জন্য প্রভাব শালী বিষ্ণু কর্মকারসহ ওই চক্রটি সঙ্গবদ্ধ হয়ে তাঁদেরকে চিরতরে নিশ্চিহ্ন করে দিতে যতিন্দ্রনাথ ব্যাপারীকে অপহরণ করেছে। ৭ মাস অতিবাহীত হলে এখনও উদ্ধার করতে পারেনি  পুলিশ।

বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষনসহ স্থানীয় প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছে অপহরণকৃত যতিন্দ্র নাথ ব্যাপারীর, পরিবার ও মামলার স্বাক্ষীরা। এব্যাপারে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে কাউকে পাওয়া যায় নি।