কুয়াকাটায় নির্বাচনী প্রচারনায় বাঁধা ও হামলার অভিযোগ

0

PIC-1কুয়াকাটা প্রতিনিধি : কুয়াকাটায় আ’লীগ প্রার্থী কর্তৃক বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারনায় বাঁধা ও বহিরাগত ক্যাডার দিয়ে কর্মীসমর্থকদের উপর হামলা, বিভিন্নভাবে হুমকী প্রদান করার অভিযোগে শনিবার সকালে কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতিকে মেয়র প্রার্থী আঃ আজিজ মুসুল্লী। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আঃ বারেক মোল্লার ভাই মোশারেফ মোল্লা ও লতাচাপলী যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলীর নের্তৃত্বে কতিপয় সন্ত্রাসী পৌর সভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডে মহড়া দিচ্ছে যাতে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের কোন নেতা কর্মী কোথাও নির্বাচনী প্রচারনায় ঢুকতে না পারে। তিনি আরও বলেন, আ’লীগ মনোনিত প্রার্থী আঃ বারেক মোল্লার পথসভায় বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে নৌকা প্রতিকের মিছিল সহকারে যোগদান করেন যেটা নির্বাচনী আচরনবিধি লঙ্ঘনের সামিল। এবং আমাদের কর্মী সমর্থকরা নির্বাচনী প্রচার কাজে গেলে তাদের অমানবিক আচরন করে তাড়িয়ে দেন এবং জীবন নাশের হুমকী দেন। আ”লীগ প্রার্থীর জামাতা নৌকার সমর্থনে বহিরাগত ক্যাডার এনে প্রচারনা করেন এবং তাদের নেতা কর্মীদের প্রচার কাজে বাঁধা প্রদানসহ বিভিন্ন ভাবে ভয়-ভীতি ও জীবন নাশের হুমকী দিয়ে আসছে। তিনি আরও বলেন, আমরা ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীর ভাই, ছেলে ও তাদের কর্মী সমর্থক দ্বারা পদে পদে প্রতিবন্ধকতার শিকার হয়ে এ বিষয় রিটার্নিং অফিসারকে অবগত করলে অদ্যপর্যন্ত সঠিক কোন তদন্ত ও সুফল পাননী তারা। তিনি সুষ্ঠ অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবীতে ভোটের দিন সেনাবাহিনী মোতায়নের দাবী জানান।

অপরদিকে বিএনপি প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলনের পর একই স্থানে পৃথকভাবে সংবাদ সম্মেলন করেন জাপা মনোনিত মেয়র প্রার্থী আনোয়ার হোসেন। তার অভিযোগ, আ”লীগ কর্মীরা নির্বাচনী প্রচারনা শুরুর পর থেকে তার কর্মী সমর্থকদের বিভিন্নভাবে হয়রানী মার-ধর করে মাঠ থেকে তাড়িয়ে দেন। তিনি আরও বলেন আ’লীগ কর্মী সমর্থক দ্বারা প্রচারনায় বাঁধার সম্মুখীন হয়ে প্রশাসনের সহযোগিতায় নির্বাচনী কার্যক্রম চালাচ্ছে। এ সময় তিনি পৌর নির্বাচনে প্রতি ভোট কেন্দ্রে ম্যাজিষ্ট্রেটসহ সেনা মোতায়নের দাবী জানান।

প্রতিদ্বন্দ্বী দু’ প্রার্থীর অভিযোগ বিষয় ক্ষমতাসীন দলের নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আঃ বারেক মোল্লা তাদের অভিযোগ অস্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে রিটার্নিং অফিসার নাজমুল কবির বলেন, কুয়াকাটা পৌর নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রচার কাজে কোন সমস্যা হলে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মইন উদ্দিন খন্দকারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে এ বিষয় তিনি আইনী ব্যবস্থা নিবেন। ###