কুয়াকাটায় মা ইলিশসহ দু’জেলে আটক এক জনকে রহস্যজনক ভাবে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

5

কলাপাড়া প্রতিনিধি ঃ কুয়াকাটার খাঁজুরা থেকে এক মন মা ইলিশ সহ দু’জেলে আটকের পর রাতভর দর কষাকষি শেষে এক জেলেকে আদালতে সোপর্দ না করে রহস্যজনকভাবে পুলিশ ছেড়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অপর জেলে অলিকে ভ্রাম্যমান আদালতে সোপর্দ করার জন্য গতকাল বুধবার শেষ বিকেলে মহিপুর মৎস্যবন্দর থেকে কলাপাড়ায় প্রেরন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সূত্রটি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সূত্রটি জানায়, মঙ্গলবার গভীর রাতে কুয়াকাটা সংলগ্ন খাঁজুরা এলাকা থেকে মহিপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো: মনিরুজ্জামান এক মন মা ইলিশ সহ অলি ও ফারুক নামের দু’জেলেকে আটক করে মহিপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সেলে আটক করে রাখার পর রাতভর চলে দর কষাকষি। অত:পর গতকাল বুধবার শেষ বিকেলে রহস্যজনক ভাবে মহিপুর পুলিশ আটক জেলে ফারুককে স্থানীয় প্রভাবশালী নজরুল ফকিরের মধ্যস্থতায় ছেড়ে দেয় এবং অপর জেলে অলিকে ভ্রাম্যমান আদালতে সোপর্দ করার জন্য বুধবার শেষ বিকেলে মহিপুর মৎস্যবন্দর থেকে কলাপাড়ায় প্রেরন করে।

 

মহিপুর ইউপি সদস্য মো: সোবাহান জানান, মঙ্গলবার রাতে দু’জেলেকে খাঁজুরা থেকে এক মন ইলিশ সহ মহিপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো: মনিরুজ্জামান অটক করে রাতে কলাপাড়া থানায় প্রেরন না করে তদন্তকেন্দ্রের সেলে আটকে রাখে। বুধবার বিকেলে স্থানীয় প্রভাবশালী নজরুল ফকিরের মধ্যস্থতায় জেলে ফারুককে ছেড়ে দেয়।

 

এ ব্যাপারে মহিপুর পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ মো: মনিরুজ্জামান-এর সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।##