কুয়াকাটা সৈকতের অবৈধ ৬০ স্থাপনা উচ্ছেদ

1

মোঃ মনিরুল ইসলাম মহিপুর প্রতিনিধি॥ বীচ্ কার্ণিভালকে সামনে রেখে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে থাকা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অবৈধ স্থাপণা উচ্ছেদ অভিযান শুর হয়েছে। রোববার সকালে প্রথম ধাপে ফার্মস এন্ড ফার্মস এর পিকনিক স্পটে থাকা ৬০টি দোকান উচ্ছেদ করা হয়। পটুয়াখালী জেলা ম্যাজিষ্টেট মোঃ মাসুদুল আলমের নেতৃত্বে এ উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। সকাল থেকে এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বেলা দুইটা পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান অব্যহত রয়েছে। এ সময় উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র দাস,ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা মোঃ সেলিম ও মহিপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন। উচ্ছেদ অভিযানে সহযোগিতা করেন পুলিশ ও বিজিবি। উচ্ছেদ অভিযানকালে ফার্মস এন্ড ফার্মসের পিকনিক স্পটে থাকা একাধিক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, ভূমি অফিসের কেয়ার টেকার কুদ্দুস স্থানীয় ভূমি কর্মকর্তার নাম দিয়ে দোকানপ্রতি ২০ থেকে ৫০ হাজার টাকা করে নিয়ে বসিয়ে দিয়েছিলো। আজ সেই ভূমি অফিসের কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগেই আমাদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে। আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পরেছি আমরা। আমাদের এখানে স্থাপনা নির্মানে সহায়তা না করলে আমরা স্থাপনা নির্মান করে ব্যবসা করতে বসতামনা।

উপজেলা ভুমি কর্মকর্তা বিপুল চন্দ দাস সাংবাদিকদের জানান, দেশ বিদেশের পর্যটকরা কুয়াকাটায় ভ্রমনে এসে সৈকতের পরিবেশ দেখে যেন তারা স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন। তাই পর্যটন নগরী কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতকে বিশ্ব পর্যটকদের কাছে তুলে ধরতে কুয়াকাটাকে সাজানো গোছানো এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে তাদের এ উচ্ছেদ অভিযান। পর্যায়ে ক্রমে বাকি অবৈধ স্থাপণা অপসারণ করা হবে।