ক্যাশিয়ার জায়েদা খানম পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির প্রায় সাড়ে ৬ কোটি টাকা আত্মসাত

5

 

ডেক্স রিপোর্টঃ পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির শত শত গ্রাহকদের জমাকৃত বিদ্যুৎ বিলের ৬ কোটি ৪৬ লক্ষ ৬২ হাজার ৭১২.২৫ টাকা আত্মসাতের  অভিযোগে সমিতির ক্যাশিয়ার জায়েদা খানমকে সাময়িক বরখাস্ত করেছেন সমিতির প্রকৌশলী হাফিজ আহম্মদ।

সংশ্লিস্ট সূত্রে জানাগেছে, পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির হিসাব রক্ষক মো. তরীবুল্লাহ আকন্দ কর্তৃক  ৩১মার্চ ২০১৬ইং তারিখ পটুয়াখালী শহরের পুরানবাজার অগ্রনী ব্যাংক শাখায় সমিতির এসটিডি হিসাব নং-১৫ এর ব্যালেন্স জানার জন্য অত্র ব্যাংকের ম্যানেজার আঃ রাজ্জাক এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান যে, ৩১শে মার্চ ২০১৬ইং তারিখ পর্যন্ত দুই কোটি তিষট্রি লক্ষ পঁচিশ হাজার এক শত একান্ন টাকা দশ পয়সা ব্যালেন্স রয়েছে। এতে সন্দেহ হলে হিসাব রক্ষক কর্তৃক তাৎক্ষণিকভাবে ব্যাংক কর্তৃক প্রদত্ত ফেব্রুয়ারী/২০১৬ইং মাসের স্টেটমেন্ট নিয়ে ব্যাংকের ম্যানেজারের সাথে যোগাযোগ করে জানতে পারে যে, দাখিলকৃত ব্যাংক স্টেটব্যাংক ভুয়া। বিষয়টি নিয়ে হিসাব রক্ষক তরীবুল্লাহ আকন্দ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি কলাপাড়া জোনাল অফিসে বর্তমানে কর্মরত ক্যাশিয়ার জায়েদা খানম এর সাথে  মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং বলেন ২০০৫ -২০০৬ইং সন হতে ব্যাংকের সীল স্বাক্ষর জাল করে ভুয়া ব্যাংক ডিপোজিট স্লীপ ও ব্যাংক স্টেটমেন্ট তৈরী করে সমিতির হিসাব শাখায় জমা দিতেন। জায়েদা খানম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সদরে ক্যাশিয়ার হিসাবে কর্মরত থাকাকালিন সময় তার দ্বারা জমাকৃত স্টেটমেন্ট এর ফেব্রুয়ারী-১৬ ইং মাস পর্যন্ত ব্যালেন্স ১০ কোটি ৮৯ লক্ষ ৮৫ হাজার ৫শত ৪৭টাকা ৩৫পয়সা। কিন্তৃু ৩১মার্চ ২০১৬ইং তারিখ সমিতির কর্তৃক চাহিদা তথ্যের বিপরীতে ব্যাংক কর্তৃক প্রদত্ত তথ্যানযায়ী ফ্রেব্রুয়ারী-২০১৬ইং মাসের ব্যাংক ব্যালেন্স চার কোটি তেতাল্লিশ লক্ষ বাইশ হাজার আট শত পয়ঁত্রিশ টাকা দশ পয়সা। উল্লেখিত তথ্য অনুযায়ী সমিতির  ৬ কোটি ৪৬ লক্ষ ৬২ হাজার ৭১২.২৫ টাকা ব্যাংকে কম জমা দিয়ে ক্যাশিয়ার জায়েদা খান ৬ কোটি ৪৬ লক্ষ ৬২ হাজার ৭১২.২৫ টাকা আত্মসাত করেছেন। এ টাকা আত্মসাতের ঘটনা স্বীকার করে ক্যাশিয়ার জায়েদা খানম গত ২ এপ্রিল২০১৬ইং তারিখ আস্তে আস্তে ৬ কোটি ৪৬ লক্ষ ৬২ হাজার ৭১২.২৫ টাকা  পরিশোধ করার জন্য সমিতির জিএম প্রকৌশলী হাফিজ আহম্মদ এর কাছে একটি লিখিত অঙ্গীকার নামায় স্বাক্ষর করেই গাঁ ঢাকা দিয়েছে বলে সমিতির একাধিক কর্মকর্তা জানান। কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনা এখন টক অব দ্যা টাউনে পরিনত হয়েছে।

উক্ত পরিমান টাকা আত্মসাতের প্রকৃত পরিমান, আত্মসাতের সাথে জড়িত সমিতির সংশ্লিস্ট কর্মচারীদের দায়-দায়িত্ব নির্ধারন ও ব্যাংকের দায়বদ্ধতার বিষয়টি তদন্ত করার জন্য বাউফল শাখা সমিতির ডিজিএম মো. আবু বকর সিদ্দিককে আহবায়ক এবং  সমিতির (প্রশাসন) এজিএম আবু ছালেহ মো. আ. হামিদ ও প্লান্ট হিসাব রক্ষক মো. জয়নাল আবেদীনকে সদস্য করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে সমিতির জিএম প্রকৌশলী হাফিজ আহম্মদ স্বাক্ষরিত স্মারক নং ২৭.১২.৭৮৯৫.৫৫৮.০১.২৭(১).১৬.১৮১০ সূত্রে জানা গেছে।

পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির গ্রাহকদের জমাকৃত বিদ্যুৎ বিলের ৬ কোটি ৪৬ লক্ষ ৬২ হাজার ৭১২.২৫ টাকা আত্মসাতের ঘটনা এখন টক অব দ্যা টাউনে পরিনত হয়েছে।