গলাচিপায় আগুনে পুড়ে যাওয়ার ঘটনায় ১৫জনের বিরুদ্ধে মামলা

0

 

গলাচিপা প্রতিনিধিঃ গলাচিপা দক্ষিন পানপট্টি এলাকায় দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে পুড়ে যাওয়ার ঘটনায় শনিবার গলাচিপা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজেস্ট্রেট আদালতে ১৫জনকে আসামি করে মামলা দিয়েয়েছে সর্বস্ব হারিয়ে যাওয়া মুরাদ মাহমুদ। মামলাটি আমলে নিয়ে গলাচিপা থানা অফিসার ইনচার্জকে তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন  দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

মামলা সূত্রে জানা যায়,গলাচিপা উপজেলার দক্ষিন পানপট্টি এলাকায় আগুন মুখা নদীতে পানপট্টি টু কোড়ালিয়া যাত্রী পারাপার নিয়ে দুটো পক্ষ একটি পক্ষ স্পীড বোট মালিক সমবায় সমিতি লি: অন্যটি লঞ্চ মালিক পক্ষ। এদের মধ্যে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছিল। মুরাদ মাহমুদ এর লঞ্চঘাট এলাকায় মেসার্স ইত্যাদি জেনারেল স্টোর নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ছিল। ওই  দোকান থেকে তার আয়-বানিজ্য ও সংসার চলত। বুধবার রাতে মুরাদ মাহমুদ প্রতিদিনের ন্যায় দোকান বন্ধ করে বাড়ি চলে যায়। ওই রাতে আসামি নুর মমিন, সৈবুর, মালেক, ফরিদ হাং ও হিরনসহ ১৫জন আসামি দলবদ্ধ হয়ে তার দোকানঘরটি আগুন ধরিয়ে দেয় এতে তার ঘরসহ ১০লাক্ষ টাকার মালমাল পুড়ে যায়।

একটি নির্ভর যোগ্য সূত্র জানায়, ওই রাতে যারা দোকানগুলোতে আগুন ধরিয়ে দেয়,তখন দুর্বৃত্তদেরকে জন সাধারন দেখে ফেলে এ নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে আসামিরা স্বাক্ষিদেরকে মারধর করলে তারা আহত হয়। আহতরা বর্তমানে গলাচিপা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে। এ ব্যাপারে  মোশাররফ প্যাদা বাদী হয়ে গলাচিপা থানায় ৭জনকে আসামি করে মামলা দিয়েছে।গলাচিপায় পানপট্টি লঞ্চঘাট এলাকায় দুর্বৃত্তদের আগুনে ৪টি দোকান পুরে প্রায় ১০লাক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। পানপট্টি লঞ্চঘাট এলাকায় প্রায় শতাধিক বিভিন্ন ধরনের দোকানপাট রয়েছে। বর্তমানে দোকানদারা  আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে।