গলাচিপায় জাতির জনক ও ধর্ম  নিয়ে কটুক্তি করায় এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

0

 

নাসির উদ্দিন,গলাচিপা প্রতিনিধি গলাচিপায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও হিন্দু ধর্ম  নিয়ে কটুক্তি করায় রবিবার গ্রামর্দন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারি  শিক্ষকের   বিরুদ্ধে উপজেলা  শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ করেছেন একই বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষক। প্রধান শিক্ষক এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করলেও অভিযুক্ত শিক্ষক জহিরুল ইসলাম এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গলাচিপা উপজেলার রতনদি তালতলী ইউনিয়নের গ্রামর্দন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক জহিরুল ইসলাম শোক দিবসের আগের দিন ১৪ আগষ্ট বঙ্গবন্ধু  সম্পর্কে তার সহকর্মীদের উপস্থিতিতে কটুক্তি করেন। ১৫ আগস্টকে তিনি শোাক দিবস হিসেবে মানতে নারাজ। তাই ১৫ আগস্ট তিনি বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে শোক দিবসের কর্মসূচিতে অংশ গ্রহন করবেন না বলে জানান। ১৬ আগষ্ট ওই শিক্ষক স্কুলে উপস্থিত হলে প্রধান শিক্ষক তার না আসার কারন জানতে চাইলে তিনি ফের একই ধরনের মন্তব্য করেন।

প্রত্যেক কর্মকর্তা কর্মচারীকে শোক দিবসে পালন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার সরকারি নির্দেশনা রয়েছে। জহিরুল ইসলাম এ নির্দেশনা উপেক্ষা করায় এলাকার মানুষের মধ্যেও তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান, রতনদি তালতলী ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা খান।

এ ছাড়াও জহিরুল হিন্দু ধর্ম ও নারীদের নিয়ে প্রায়ই কটুক্তি করেন। গলাচিপা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মরহুম মুক্তিযোদ্ধা ডা. ম. আ. মালেকের মেয়ে ওই স্কুলের শিক্ষিকা মোসা. সরমিন মালেক অভিযোগ করেন, তিনি ও তার সহকর্মী বীথিকা সেন একই সাথে কর্মস্থলে যাতায়াত করেন। এ বিষয়ে শিক্ষক জহিরুল ইসলাম তাকে বলেন, হিন্দু ধর্ম কোন ধর্মই না। তাদের সাথে চলাফেরা করাও ইসলামে নিষিদ্ধ। সরমিন ও বীথিকা  আরও অভিযোগ করেন, মুষলধারে বৃষ্টির মধ্যে স্কুলে ভেজা পোষাকে তারা উপস্থিত হলে বিব্রতকর অবস্থায় কথা বলতে থাকলে এক পর্যায়ে জহিরুল ইসলাম তাদের দিকে অশ্লীনভাবে তাকিয়ে  থেকে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেন। বিষয়টি প্রধান শিক্ষককে জানালে তিনি অফিস কক্ষে সব শিক্ষকের উপস্থিতিতে ওই শিক্ষককে নিয়ে সমঝোতার জন্য বসেন। আলোচনার এক পর্যায়ে জহিরুল ইসলাম এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে শিক্ষিকা বীথিকাকে  স্কেল দিয়ে প্রহার করতে তেড়ে আসেন।

এ ব্যাপারে  উপজেলা  শিক্ষা কর্মকর্তা আ. সত্তার  জোমাদ্দার জানান, অপরাধী যেই হোক তার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমানিত  হলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে ।