গলাচিপায় জে ডি সি পরীক্ষার্থীকে  মারধর

2

 

নাসির উদ্দিন,গলাচিপা প্রতিনিধিঃ গলাচিপায় বৃহস্পতিবার জে ডি সি পরীক্ষা কেন্দ্রে লিখিত খাতা দেখতে না দেয়ায়  সহ-পাঠীর মা ফেরদৌসী বেগমসহ কয়েক জন সন্ত্রাসী  পরীক্ষার্থী মো: সাব্বির হোসেনকে মারধর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনা ঘটেছে গলাচিপা উপজেলার কালিকাপুর নূরিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে। এ ব্যাপারে সহপাঠীর মা ফেরদৌসীসহ কয়েকজনকে অভিযুক্ত  করে  সাব্বিরের মা চিনারা বেগম বাদী হয়ে গলাচিপা থানায়  লিখিত অভিযোগ করেন ।

সূত্র জানায়, গলাচিপা এনজেড আলিম মাদ্রাসার থেকে জে ডি সি পরীক্ষার্থী মো: সাব্বির হোসেন বৃহস্পতিবার কালিকাপুর সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (বিষয় পরীক্ষা দিচ্ছিল। তার সহপাঠী মুশফিকুর রহমান শুভ সামনের বেঞ্চ থেকে  বারবার সাব্বিরের খাতা দেখার চেষ্টা করে দেখতে না পারায় পরীক্ষা শেষে বিষয়টি শুভর মা ফেরদৌসীকে  বললে তাৎক্ষণিক  সে সাব্বিরের উপর ক্ষেপে যায়। সাব্বির হোসেন বাসায় যাওয়ার পথে কালিকাপুর বাজারে সড়কের উপর সহপাঠী শুভর মা ফেরদৌসীসহ ৪/৫জন সন্ত্রাসী মো: সাব্বির হোসেনকে শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাথারী কিল ঘুষি মারতে থাকে। গত পহেলা নভেম্বর কুর আন মসজিদ বিষয় পরীক্ষায় খাতা দেখতে না পারায় শুভর মা ফেরদৌসী বেগম পরের পরীক্ষার দিন কেন্দ্রে গিয়ে সাব্বিরকে অকথ্য ভাষায় গাল মন্দ করে এবং ভয় দেখায়।  সাব্বির বাকী পরীক্ষা কি ভাবে দিবে তাও দেখিয়ে দিবে। ফেরদৌসী বেগমের গ্রামের বাড়ী একই উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের নলুয়াবাগী গ্রামের মোজ্জাফার মাস্টারের মেয়ে।  বর্তমানে সে গলাচিপা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের লঞ্চঘাট এলাকায় বাস করে।সাব্বিরকে মারপিট করায় এখন সে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। এ ব্যাপারে গলাচিপা থানা উপ- পরিদর্শক (এস আই) ম্:োজাকির হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়েছি দোষীকে আইনের আওতায় আনা হবে।