গলাচিপা মিনি সিনেমা হল

4

গলাচিপা প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলায় চা দোকানগুলো পরিণত হয়েছে মিনি সিনেমা হলে। দিন-রাত চলছে অগ্লীল ছবির প্রদর্শন ও নাচগান। চা খেলে সিনেমা ফ্রি। এখানে রয়েছে চা খেতে খেতে অশ্লীল ছবি ও নাচ গান দেখার বাড়তি সুযোগ। প্রতিটি রেস্তোরায় রয়েছে টেলিভিশন ও সিডি। গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে রেস্তোরা ব্যবসায়ীরা নিয়েছেন এ অভিনব কৌশল।

দেখা গেছে গোলখালী বাজার, হরিদেবপুর, চৌরাস্তা বাজার, নতুন লঞ্চ ঘাট, পুরান লঞ্চ ঘাট, থানা রোড, কলাগাছিয়া বাজার, গাজিপুর বাজার, আমখোলা বাজার, মুদির হাট, আদানি বাজার, চরমোন্তাজ বাজাব, মোল্লার বাজার, চিকনিকান্দি ইউনিয়নের সবগুলো হাটবাজারের হোটেল- রেস্তোরা ও চা দোকানগুলোতে দেখানো হচ্ছে অশ্লীল সিনেমা এবং নাচ-গান। বড় বড় কোন হোটেল-রেস্তোরায় সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলা ছবি কিংবা ইংরেজি ও হিন্দি ছবি সিডিতে দেখানো হচ্ছে। মারপিট ও নাচ-গানে ভরপুর এসব ছবির প্রতি আকৃষ্টি হয়ে উঠতি বয়সের স্কুল-মাদ্রাসাগামী শিক্ষার্থীরা ঘন্টার পর ঘন্টা এসব হোটেলে আড্ডা দিচ্ছে। এছাড়া শ্রমিক, দিনমজুর ও রিকশা ওয়ালাসহ নি¤œবিত্ত আয়ের মানুষ ভিড় জমায়। যে যত খরচ করতে পারবে সে তত বেশি সিনেমা উপভোগ করতে পারবে। এলাকাবাসী জানায়, রেস্তোরা থেকে শুরু করে পান দোকান সবখানেই সকাল থেকে শুরু করে  গভীর রাত পর্যন্ত চলে ভিসিডিতে অশ্লীল কুরুচিপূর্ণ ছবি। এ ছাড়া এলাকাবাসী অভিযোগ কর বলেন, কোন কোন দোকানে রাত ১১টার গোপন চুক্তিতে প্রকাশোই পর্নো ছবি প্রদর্শন করা হয়। এ ছবি দেখানোর জন্য জনপ্রতি আলাদা করে নেয়া ২থেকে ৪টাকা করে। গলাচিপা উপজেলার প্রত্যেক ইউনিয়নের বাজারে প্রায় সব রেস্তোরায় প্রকাশ্যে অশ্লীল নাচ-গান ও ছবি ভিসিডিতে দেখানো হয়। ফলে এর প্রভাব পড়ে সিনেমা হল মালিকদের ওপর। আর এ কারণে চলচ্চিত্রে মন্দাভাব চলে এসেছে সিনেমা হলে।