চাচা শ্বশুর কর্তৃক শ্লীলতাহানীর ঘটনায় আত্মহত্যার চেষ্টা

0

ডেস্ক রিপোর্ট : বরগুনার তালতলি উপজেলার গ্যাঙ্গামারা ইউনিয়নে চাচা শ্বশুর কর্তৃক শ্লীলতাহানীর ঘটনায় আসমা বেগম নামে এক সন্তানের জননী বিষপান করে আত্মহত্যার অপচেষ্টা  করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আসমা বেগম মূমূর্ষ অবস্থায় পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিকে শ্লীলতাহানীর ঘটনায় অভিযুক্ত লম্পট নান্টু হাওলাদার শ্রমিক দলের প্রভাব খাটিয়ে কোন আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ার হুমকী প্রদান করেছে বলে অভিযোগ করেন আসমার ভাই ।

 

আসমার শ্বশুর নয়া মিয়া জানান, আসমার স্বামী শাহআলম হাওলাদার ঢাকায় চাকুরি করেন। সেই সুযোগে গতকাল শুক্রবার দিনগত রাত ১টার দিকে নানা অজুহাতে আসমার ঘরে ঢুকে আসমাকে জোর পূর্বক শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে প্রতিবেশি জয়নালের ছেলে  নান্টু হাওলাদার। এসময় আসমার ডাকচিৎকারে নান্টুর স্ত্রী ফজিলা এগিয়ে এসে তাকে রক্ষা করেন এবং নান্টুকে জুতাপেটা করেন। এসময় বাড়ির অন্য লোকজন এগিয়ে এসে নান্টুকে গালমন্দ করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। কিন্তু ঘটনার এক ঘন্টার মাথায় আসমা ঘরে থাকা কিটনাশক পান করে আত্মহত্যার অপচেষ্টা চালান। পরিবারের অন্য সদস্যরা বিষয়টি টের পেয়ে ওই রাতেই আসমাকে আমতলি স্বাস্থ্য কমúেøক্সে নিয়ে আসেন। সেখানে আসমার প্রাথমিক চিকিৎসা হয়। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়। বর্তমানে আসমা পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।