চৌদ্দবুড়িয়া আদর্শ বালিকা দাখিল মাদ্্রাসার সুপার  আবদুল মোতালেব এর সংবাদ সম্মেলন

2

 

বার্তা রিপোর্টঃ চৌদ্দবুড়িয়া আদর্শ বালিকা দাখিল মাদ্্রাসার সুপার  এ কে এম আবদুল মোতালেব রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সদররোডস্থ  পটুয়াখালী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এর সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন গত ৯ ও ১০ মার্চ স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিকে চৌদ্দবুড়িয়ায় অনিয়ম ও র্দূনীতিতে আদর্শ বালিকা দাখিল মাদ্্রাসার বেহাল দশা শিরোনামে এবং আমি এবং আমার প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মোঃ খলিলুর রহমান মাদ্্রাসার বেহাল দশা করেছি  যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তা মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন। আমি ৬  ফেব্রুয়ারি  ১৯৯৪ সালে সুপার পদে নিয়োগ পেয়ে সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছি। তিনি লিখিত বক্তব্যে আরও জানান, মাদ্্রাসার ছাত্রী বেতন ও অন্য কোন আয়ের উৎস না থাকায় প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ আত্মসাতের কোন সুযোগ নাই। বরং আমি এবং সভাপতি ব্যক্তিগত ভাবে মাদ্্রাসার বহু প্রয়োজনে অর্থ ব্যয় করে থাকি। আমার ছেলেদের অর্জিত অর্থ এবং আমার পৈত্রিক সম্পত্তি বিক্রি করে সন্তানদের ব্যবসা এবং বসতবাড়ি নির্মাণ করিয়াছি।  তিনি আরও উল্লেখ করেন অঅমার ৫তলা এবং ৩ তলা ফাউন্ডেশনের কোন বিডিং নাই। আমি ৫নং কমলাপুর ইউণিয়নের কাজী। সাধারণতঃ কাজীর কাজ বিকেলে করে থাকি। এতে মাদ্্রাসার দায়িত্ব পালনে  কোন বিঘেœর সৃষ্টি হয় না। আমার বাড়ীর মধ্যে যে নলকূপ বসানো আছে  তাহা তৎকালীন ইউনিয়ন পরিষদের দেয়া । আমাকে হেয় করার উদ্দেশ্যে এ ধরনের সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে প্রিন্ট ও মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।