জনসেবার প্রতিদান পেলেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ নজির হোসেন কালু পাটোয়ারী

3

 

কে এম সোহেল, আমতলী প্রতিনিধিঃ শৈশব থেকেই বন্ধুসুলভ ছিলেন তিনি। ছিলেন পরোপকারীও। ঐতিহ্যবাহী জমিদার বাড়ির আভিজাত্যের প্রাচীর উপেক্ষা করেও ধনী গরীবের সীমানা ছাড়িয়ে যায় তাঁর বন্ধুত্ব। গ্রামবাসীর বিপদে আপদে খালি গায়ে খালি পায়ে সবার আগে ছিলো তার উপস্থিতি।

বঞ্চিত মানুষের সুখ দুঃখ দেখেছেন তিনি খুব কাছ থেকে। কৈশোর ডিঙ্গোতে না ডিঙ্গোতেই মুক্তিযুদ্ধে যোগ দেন তিনি। যুদ্ধপরবর্তী সময়ে স্থানীয় জনগনের দাবির মুখে জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিতে হয় তাকে। সেই থেকে আজ অবধি তৃণমূল মানুষের দুঃখ সুখের চির সাথী তিনি। সত্তোরোর্ধ বয়সে এখনও তিনি গ্রামে গ্রামে নিঃস্বার্থভাবে নিস্পত্তি করেন স্থানীয় বিরোধ। ছোট বড় সব মিলিয়ে দশ হাজারেরও বেশি স্থানীয় বিরোধের মিমাংসা করেছেন তিনি।

বরগুনার তালতলী উপজেলার ১নং পঁচাকোড়ালিয়া ইউনিয়নের প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা বারবার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ নজির হোসেন পাটোয়ারী। গায়ের রং কালো হওয়ায় বাবা-মা তাকে আদর করে ডাকতেন কালু মিয়া। সেই থেকে তার ডাক নাম হয়ে যায় কালু পাটোয়ারী। স্থানীয় গ্রামবাসীর দাবির মুখে তিন তিন বার ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন সেই ছেলে বেলায়। এরপর এক এক করে দু’দুবার পচাকোড়ালিয়া ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি।

নজির হোসেন কালু পাটোয়ারীর নিঃস্বার্থ জনসেবার কথা মনে রেখেছে পঁচাকোড়িালীয়া ইউনিয়নের সর্বস্তরের সাধারণ জনগন। তাঁর ত্যাগের প্রতিদান দিয়েছে তালতলী উপজেলা আওয়ামীলীগ এবং বরগুনা জেলা আওয়ামীলীগসহ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উর্ধ্বতন নেতৃবৃন্দও। এবারের নির্বাচনেও পঁচাকোড়ালিয়া ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেয়েছেন তিনি। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পাওয়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনাসহ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের স্থানীয় ও কেন্দ্রিয় নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আমৃত্যু সাধারণ জনগনের পাশে থাকার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন নজির  হোসেন কালু পাটোয়ারী। আগামী ১৬ এপ্রিল তালতলীর পচাঁকোড়ালিয়ার এ ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।