টেষ্টি হজমী  খেয়ে শিশুর মৃত্যু ॥ ৫ শিক্ষার্থী অসুস্থ

4

আমতলীপ্রতিনিধিঃ বরগুনার পাথরঘাটায়  টেষ্টি হজমী ট্যাবলেট খেয়ে হাসান সামের এক শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু ও ৫ শিক্ষার্থী গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। শনিবার সন্ধ্যায়  পাথরঘাটা উপজেলার কালমেঘা ইউনিয়নের ঘুটাবাছা গ্রামে এ ঘটনাঘটে। অসুস্থ শিক্ষার্থীদের রাত ১০টার সময় পাথরঘাটা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং মৃত শিক্ষার্থী হাসান (৫)  কে ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে  প্রেরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। বিষয়টি পাথরঘাটা থানার ওসি (তদন্ত) কমলেশ হালদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। হাসপাতালে ভর্তি শিক্ষার্থীরা হল, ইয়াছিন (৯), বুসরা(৪), সাদিয়া (৫), লিমা (৬), ও সেতু (৯)। এসব শিশুরা ঘুটাবাছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

পুলিশ সুত্রে জানাযায়, শনিবার বিকাল ৪টার সময় শিশুদের প্রতিবেশী দিন মজুর জাফর মিয়ার  মেয়ে ফারজানার সাথে তাদের বাড়িতে এসব শিশু শিক্ষার্থীরা  খেলতে আসে এসময় জাফর মিয়ার স্ত্রী মরিয়ম শিশুদের  টেষ্টি হজমী ট্যাবলেট  খেতে  দেয়। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে সকল শিশুরা অসুস্থ হয়ে পড়লে অভিভাবকরা তাদেরকে পাথরঘাটা হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ভর্তি করান। রাত ১০টার সময় হাসান হাসপাতালে মারা যায়। পরে রাত ৩টার সময় মরিয়ম  বেগম ও তার  মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য পুলিশ আটক করে। পরে তাদের  দেয়া তথ্যমতে হজমী বিক্রেতা মুদি  দোকানদার আবুল কালামকে সদর ইউনিয়নের মাছের খাল গ্রামের নিজ বাড়ি  থেকে আটক করে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী প্রতিবেশী কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা  গেছে, মরিয়ম দীর্ঘ দিন ধরে চট্টগ্রামের বিভিন্ন জায়গায় কাজ করত। গত এক সপ্তাহ আগে  সে বাড়িতে আসে। মরিয়মের পাচারকারি চক্রের সাথে  যোগাযোগ থাকতে পারে বলে অনেকে সন্দেহ করছেন।