দশমিনায় বৃদ্ধ মহিলাকে বেধে জমি দখল

1

রিপন কর্মকার,বিশেষ প্রতিনিধি,দশমিনাঃ  পটুয়াখালীর দশমিনায় সংখ্যালঘূ এক মহিলাকে গাছের সাথে বেধে বেদম প্রহার করে তার জমি দখল করে ঘর উত্তোলন করছেন প্রভাবশালী একটি মহল। গুরুতর আহত ঐ সংখ্যালঘূ মহিলাকে আশংকাজনক অবস্থায় পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দশমিনা থানা ও স্থানীয় বিভিন্ন সূত্র জানায় উপজেলার আলীপুর এলাকায় মৃত্যু অতুল চন্দ্র দাসের স্ত্রী কানন বালা (৬৫) স্বামীর ভিটেতে বসোবাস করছিলেন। স্বামীহারা কানন বালার জমির ওপর ললুপ দৃষ্টি পড়ে স্থানীয় প্রভাবশালী মৃত আব্দুল আলী প্যাদার ছেলে আবুল হোসেনের (৪০)। অভিযোগ রয়েছে উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী এক নেতার ইন্ধনে সোমবার১২/১৪ জন সন্ত্রাসী নিয়ে জোর করে দিনে দুপুরে কানন বালার জমিতে দখল করে ঘর তোলে আবুল হোসেন। এসময় কানন বালা বাধা দিলে তার হাত পা গাছের সাথে বেধে তার ওপর পাষবিক র্নিযাতন চালানো হয়। স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় কানন বালাকে উদ্ধার করে। সন্ত্রাসীদের ভয়ে কানন বালা পালিয়ে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েয়েছেন। এরঘটনায় কানন বালার একমাত্র ছেলে দিনমজুর অসীম দাস দশমিনা থানায় ১৪ জনকে আমামী করে  বৃহস্পতিবার মামলা দায়ের করেছেন। দশমিনা থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ ইউনুস আলী জানান, আসামী গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এ্যাডভোকেট উত্তম কুমার কর্মকার অবিলম্বে দখলদার সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার দাবী করেছেন।