দশমিনায় সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলায় গর্ভবতী সহ আহত -৪

1

 

রিপন কর্মকার,বিশেষ প্রতিনিধি দশমিনা ঃ পটুয়াখালীর দশমিনা সদরে সন্ত্রাসী বাহিনী চাদা না পেয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে স্থানীয় যুবলীগের সহ-সভাপতি আলী হোসেন ও তার পরিবারের চার সদস্যকে। এর মধ্যে যুবলীগ নেতার গর্ভবতী স্ত্রীকেও পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। আহতদের দশমিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ও স্থানীয় বিভিন্ন সূত্র জানায়, গতকাল বুধবার চরহাদীর ভ’মিহীন কৃষক ও স্থানীয় যুবলীগের সহ-সভাপতি আলীহোসেন তার দখলীয় ২২৮৮ দাগের জমিতে বসতঘর মেরামত শুরু করলে লিটন চেয়ারম্যানের ক্যাডার স্থানীয় কালু হাওলাদারের ছেলে সোহেল, নাজমুল, জুয়েল সহ ১৫-২০ জন স্থানীয় সন্ত্রাসী বাধা দেয় এবং মোটা টাকা চাদা দাবি করে। আলীহোসেন চাদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে সন্ত্রাসীরা আলীহোসেন (৩৬) তার ৮ মাসের গর্ভবতী স্ত্রী শাহিনুর বেগম(৩০) বোন রাশিদা বেগম(৪০) ছোট বোন মমিনা আক্তারকে(১৭) পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। আশংকাজন অবস্থায় আলীহোসেনের ৮ মাসের গর্ভবতী স্ত্রী শাহিনুর এবং বোন রাশিদাকে দশমিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দশমিনা সদর ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল মাহামুদ লিটন জানান, খাস জমি নিয়ে বিরোধ থাকায় নিজেরাই নিজেদেরকে পিটিয়ে আহত করে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে আমার লোকজন এঘটনায় জড়িত না। দশমিনা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মনিরুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।