দশমিনা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

1

 

ডেক্স রির্পোটঃ পটুয়াখালীর দশমিনায় সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন দশমিনা উপজেলা আওয়ামীলীগ। বুধবার রাতে পটুয়াখালী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন  অনুষ্ঠিত হয়।

পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে দশমিনা সদর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত পরাজীত প্রার্থী গৌতম রায়। তিনি অভিযোগ করেন, ২২ মার্চ প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দশমিনার সদর ইউনিয়নে ১ থেকে ৬ নং ওয়ার্ডের স্বতন্ত্র (আ.লীগ বিদ্রোহী) প্রার্থী ইকবাল মাহমুদ লিটন প্রশাসনের সহযোগীতায় ওই সব কেন্দ্র দখল করে প্রকাশ্যে টেবিলে তার প্রতীকে ভোট দিবে বাধ্য করেছে। ইকবাল মাহমুদ লিটনের কর্মী সমর্থকরা হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ী ঘর, মন্দির সহ বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা চালিয়ে তার পক্ষের (গৌতম) ৩০ থেকে ৪০ জন  কর্মী সমর্থক কে আহত করে। এ অবস্থায় এলাকার জনগন ও আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীদের জীবন রক্ষার্থে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য তিনি সরকারও নির্বাচন কমিশনের নিকট আহবান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে দশমিনা উপজেলা আ.লীগের সভাপতি এড.আব্দুল আজিজ,  জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ইসমাইল হোসেন মৃধা, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক কাজী আলমগীর হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি এড.আব্দুল খালেক উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে একই দাবিতে দশমিনা উপজেলা বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। দশমিনা সদর ইউনিয়নের বিএনপি মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. রুহুল আমীন মোল্লা অভিযোগ করেন, ব্যাপক অনিয়ম এবং ভোট ডাকাতির কারণে সৈয়দ জাফর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, লক্ষ্মীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পূর্ব দশমিনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোট গ্রহন স্থগিত করা হয়। এছাড়াও বাকি ছয়টি কেন্দ্রে ভোট ডাকাতির ঘটনা ঘটিয়েছে আওয়ামী লীগ। তিনি সব ভোট কেন্দ্রের ভোট বাতিল করে পুনরায় ওই ইউনিয়নে ভোট গ্রহনের দাবি করেন। এ সময় দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।