দুর্নীতি মুক্ত  রেখে সকলকে সেবা দিতে হবে … দুর্নীতি দমন কমিশনার  ড.নাসিরউদ্দিন আহমেদ

4

স্টাফ রিােপার্টারঃ দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার  ড.নাসিরউদ্দিন আহমেদ বলেছেন সকল সরকারি সেবা মুলক প্রতিষ্ঠান দুর্নীতি মুক্ত রেখে মানুষের দোড় গোড়ায় সেবা পৌছে দিতে হবে।এজন্য সকল কর্মকর্তা কর্মচারীরা একযোগে কাজ করতে হবে ।যাতে কোন মানুষ সেবা নিতে এসে হয়রানির স্বীকার না হয়।প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের সামনে সিটিজেন চার্ট টানিয়ে দিতে হবে। সেবা গ্রহন কারীরা সহজেই তাদের তথ্য জানতে  পাড়ে।এজন্য প্রতিটি অফিসে ফ্রোন ডেক্স চালু করতে হবে।তাহলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়া সম্ভব হবে।তিনি আরও বলেন বরিশাল বিভাগের ৬ টি জেলার সকল অফিস সমুহে আগামী ২০১৭ সালের মধ্যে শত ভাগ দুর্নীতি মুক্ত না করা গেলেও সহনীয় পর্যায় নিয়ে আসতে হবে।এজন্য সকল কর্মকর্তাদের আরও সচেতন হতে হবে। পাশাপাশি দুদক ও দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা পালন করতে হবে।তিনি আরও বলেন যে সকল অফিসে দুর্নীতি ব্যাপক আকারে দেখা দিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য দুদক কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।মঙ্গলবার বরিশাল জেলা প্রশাসক কার্যালয় গনশুনানি ও জনগনের ক্ষমতায়ন শীর্ষক দুর্নীতি প্রতিরোধ মুলক কর্মশালয় উদ্বোধনী ও সনদ বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষনে একথা গুলো বলেন।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বরিশালের জেলা প্রশাসক ড. গাজী মোঃ সাইফুজ্জামান এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার মোঃ গাউস,দুদকের পরিচালক মোঃ মনিরুজ্জামান,পরিচালক শিরিন পারভীন।স্বগত বক্তব্য রাখেন দুদকের বরিশাল বিভাগীয় পরিচালক মোঃ আক্তার হোসেন।

অনুষ্ঠানের দুর্নীতি প্রতিরোধে জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল এর ভুমিকা ও তথ্য অধিকার আইন ২০০৯,নাগরিক সনদ এবং দুর্নীতি মুক্ত সরকারী সেবা ও গনশুনানি বিষয়ক বিভিন্ন ভিডিও চিত্র দেখানো হয়।এছাড়া দলভিত্তিক আরোচনা ও উপস্থপনা করা হয়।এর মধ্যে ভুমি অফিস,পুলিশ,সবরেজিস্টার অফিস,স্বাস্থ্য ও শিক্ষা অফিস সমুহে দুর্নীতি,দূর্বলতা ও প্রতিকারের উপায় চিহ্নিত করে উপস্থাপনা  করা হয়।এ কর্মশালায় ৬ টি জেলার সিভিল সার্জন, ,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার,জেলা শিক্ষা অফিসার, জেলা সাবরেজিস্টার,কর কমিশনার, তথ্য অফিসার,জেলা দুপ্রকর সভাপতি সম্পাদক এ কর্মশালয় অংশ গ্রহন করে। পরে প্রধান অতিথি কর্মশালয় অংশ গ্রহন কারীদের মাঝে সনদ পত্র বিতরন করে।