পটুয়াখালীতে ইভটিজিং-এর শিকার কলেজ ছাত্রী!! প্রতিবাদে বাড়ি-ঘর ভাংচুর

2

ডেস্ক রিপোর্ট : পটুয়াখালীতে ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করতে গিয়ে পটুয়াখালী সরকারি কলেজের বিবিএ ২য় বর্ষের ছাত্র রাসেল মৃধাকে মারধর করেছে বখাটেরা। প্রতিবাদে গুলবাগের কয়েকটি বাড়ির সামনের বেড়া ভাংচুর করেছে কলেজের ছাত্ররা। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

রাসেল জানায় মঙ্গলবার বিকেলে গুলবাগে ফারুক স্যারের বাসায় ছাত্র-ছাত্রীরা পড়তে গেলে সেখানে সোনিয়া নামের এক ছাত্রীকে উত্যাক্ত করে স্থানীয় রাকিব নামের এক যুবক। এ ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে রাকিব ও তার বন্ধুরা রাসেলকে মারধর করে। খবর পেয়ে কলেজের হেস্টেলের ছেলেরা রাকিবসহ আশেপাশের কয়েকটি বাসার বেড়া ভাচুর করে।

সরকারি কলেজের ব্যাবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষক ফারুক হোসেন জানান, এলাকার ছেলেরা আমার ছাত্রীকে উত্যাক্ত করায় এক ছাত্র তার প্রতিবাদ করলে তাকে আহত করা হয়। এতে কলেজের হোষ্টেলের ছাত্ররা উত্তেজিত হয়ে কয়েকটি বাসার বেড়া ভাংচুর করে। আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে পুলিশের সহযোগীতায় পরিস্থিতি শান্ত করি। কিন্তু বিষয়টিকে ধামাচাপা দেয়ার জন্য একটি মহল বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়াচ্ছে।

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য রাকিবের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারিকুজ্জামান জানান, পলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোন কোন অভিযোগ পাইনি অভিযোগ পেলে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।