পটুয়াখালীতে কিশোরী বধুর আত্মহত্যা

1

ডেস্ক রিপোর্ট ঃ পটুয়াখালী সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের পচাঁকোড়ালিয়া গ্রামে স্বামীর সাথে মন-মালিণ্যের জের ধরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে কিশোরী গৃহবধু লাকি। গত সোমবার সন্ধারাতে বাবার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে পটুয়াখালী সদর থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার পটুয়াখালী মর্গে  লাশটির ময়না তদন্ত সম্পন্ন করা হয়।

পটুয়াখালী সদর থানার সেকেন্ড অফিসার এস.আই. হুমায়ুন কবির ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, ওই গ্রামের জাহাঙ্গির হাওলাদারের কিশোরী মেয়ে লাকির সাথে বাগেরহাটের ছেলে আরিফের মোবাইলে পরিচয় হলে সাত মাস আগে তাদের বিয়ে হয়। শ্বশুরবাড়ি যেতে চাইলে স্বামী বিষয়টি এড়িয়ে যেত। আরিফ গতকাল লাকির বাবার বাড়ি থেকে যাওয়ার সময়ও এ বিষয়টি নিয়ে দুজনের মধ্যে বাক-বিতন্ডা হয়। সন্ধার পর লাকি ঘরের দোতলায় আড়ার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দেয়। তার মা হনুফা বেগম মুমুর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধারের কিছুক্ষন পর তার মৃত্যু হয়।

স্বামী আরিফের পূর্ণ পরিচয় লাকির পরিবার থেকে পাওয়া যায়নি। তবে সে পেশায় একজন ট্রাক ড্রাইভার বলে নিশ্চিত করেছে লাকির পরিবার।