পটুয়াখালীতে নানা আয়োজনে বিজয় দিবস পালিত

7

স্টাফ রিপোর্টারঃ পটুয়াখালীতে নানা আয়োজনে বিজয় দিবস পালিত। জেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন সরকারী বে-সরকারী প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে বিজয় দিবস পালন করছে।

এ উপলক্ষে শহরের বিভিন্ন সরকারি,আধা-সরকারি, স্বায়িত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান সমূহে আলোকসজ্জা করা হয়। শুক্রবার সূর্য্য উদয়ের সাথে সাথে পুলিশ লাইনের ভিতরের চত্বরে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সূচনা হয়। একই সময়ে সকল সরকারী বে-সরকারী ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল সাড়ে ৬টায় জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, আওয়ামীলীগ, বিএনপি সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন স্মৃতিসৌধে পুস্পস্তবক অর্পন করেন। পরে সকাল সাড়ে ৮টায় পটুয়াখালী মরহুম আবুল কাসেম স্টেডিয়ামে জাতীয় পতাকা বেলুন, ফেষ্টুন, শান্তির প্রতীক পায়রা  উড়িয়ে কুচকাওয়াজের শুভ উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক এ কে এম শামিমুল হক সিদ্দিকী।  কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে  প্রশাসনের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে প্রধানগন, মুক্তিযোদ্ধা,জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ,সুধীজন,গনমান্য ব্যক্তিবর্গ , বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহন করেন।বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারদের সংর্বধনা দেয়া হয়। বিকেলে মরহুম আবুল কাসেম স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসন এবং পৌর পরিষদের লাল ও নীল দলের মাঝে এব প্রতি ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।   এ ছাড়াও শহরের প্রধান প্রধান সড়কদ্বীপ সমুহে পতাকা দিয়ে সজ্জিত করেন জেলা প্রশাসন।

গলাচিপা প্রতিনিধিঃ ৪৫তম মহান বিজয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন উপলক্ষে নর উদ্যোগে গলাচিপায় বর্ণাঢ্য বিজয় গলাচিপা উপজেলা প্রশাসরে‌্যালীসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালিত হয়েছে শুক্রবার । ৩১বার তোপধ্বনির মাধ্যমে বিজয় দিবসের শুভ সূচনা হয়। সকালে বাংলাদেশ তুরস্ক ফ্রেন্ডশীফ স্কুল মাঠে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং কুচকাওয়াজ ও শরীর চর্চা প্রদর্শিত হয়। এতে বাংলাদেশ পুলিশ, ভিডিপি, রোভার স্কাউট ও পৌরসভার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীরা  মহান বিজয় দিবসে অংশ গ্রহন করেন। আয়োজকরা বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা দেন।

এ সময় অনুষ্ঠানে  গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুললাহ আল বাকীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন গলাচিপা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সামসুজ্জামান লিকন, বিশেষ অতিথি আওয়ামীলীগের উপজেলা সভাপতি সšেতাষ কুমান দে, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মো¯তফা টিটো,তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক আসম জাওয়াদ সুজন, গলাচিপা স্বাস্থ্য কমপেলক্সের পরিবার পরিকল্পনা  কর্মকর্তা মো: মনির হোসেন, গলাচিপা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো: ফোরকান কবির, গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো: শাহজাহান মিয়া,থানা অফিসার ইনচার্জ আ: রাজ্জাক মোলাসহ উপজেলার সকল মুক্তিযোদ্ধা , চেয়ারম্যানবৃন্দ, উপজেলার সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দ ও স্থানীয় সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। কর্মসূচীর মধ্যে ছিল শিশুদের দৌড়, যেমন খুশি তেমন শাজো,মহিলাদের অংশ গ্রহনে মুক্তিযোদ্ধা ভিত্তিক আলোচনা সভা ও ক্রীড়া অনুষ্ঠান, টি টুয়ান্টি ক্রিকেট, প্রীতি ফুটবল প্রতিযোগিতা, গলাচিপা হাসপাতালে উন্নত মানের রোগীদের মাঝে খাবার পরিবেশন, জাতির শাšিত সমৃদ্ধি ও অগ্রগতি কামনায় সকল মসজিদে দোয়া ,মন্দির ও উপসনায় প্রার্থনা করা হয়।অপর দিকে গলাচিপা উপজলা বি এন পি কার্যালয়ে সিনিয়র সভাপতি আঃ সত্তার হাওলাদারের সভাপতিত্ত্বে উপজেলা বি এন পি মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছেন। কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে দলীয় কার্যালয় জাতীয় পতাকা উত্তোলন, মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্তম্ভে পুস্প স্তবক অর্পণ,শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্য দান, মহান বিজয় দিবস নিয়ে নানামুখী আলোচনা শহিদদের রূহের মাফেরাত কামনায় শেষে মিলাদ মাহফিল শেষে মিষ্টি বিতরণ কর হয়।

কুয়াকাটায়ঃ কুয়াকাটাসহ উপকূলীয় এলাকায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রাজনৈতিক সংগঠন ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নানা কর্মসূচী পালন করেছে। এর মধ্যে ওই দিন সকাল ৮টার দিকে মহিপুর কো-অপারেটিভ মাধ্যমিক বিদ্যালয় আলোচনা সভা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করেন। আলোচনা শেষে প্রতিযোগীদের মধ্যে পুরুস্কার বিতরণ করা হয়েছে। পরে মহিপুর ইউনিয়ন আ’লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে সকাল ১০টায় মহিপুর স্কুল থেকে এক বর্নাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি মহিপুর বন্দরের গুরুত্বপূর্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে স্কুল মাঠে এসে আলোচনা সভা করেন। অপর দিকে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) কুয়াকাটা শাখার সাংবাদিকবৃন্দ এবং লতাচাপলী ইউনিয়ন আ’লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নের্তৃবৃন্দরা লতাচাপলী ইউনিয়ন পরিষদ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এছাড়া মহিপুর শিল্পীগোষ্ঠির আয়োজনে সন্ধ্যার পর বিজয় দিবসের তাৎপর্যকে সামনে রেখে বিনোদনের লক্ষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।

দশমিনায়ঃ পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় গতকাল র‌্যালী, জাতীয় পতাকা উওোলন, কুচকাওয়াজ ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনাসহ বিস্তারিত কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে বিজয় দিবস পালন করা হয়।

পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় বিজয় দিবস উপলক্ষে বেলা সাড়ে ১১ টায় দশমিনা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে বীর মুক্তিযোদ্ধাদেরকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইসরাইল হোসেনের সভাপতিত্বে সংবর্ধনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড. মোঃ শাখাওয়াত হোসেন শওকত, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ নাজির আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ ফখরুজ্জামান বাদল ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ডা. সামছুন্নাহার খান ডলি প্রমুখ।

মহিপুরেঃ মহিপুরের মৎস্য বন্দর আলীপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রাক প্রাথমিক কেন্দ্রের শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। ১৬ ডিসেম্বর সকাল ৭টায় পতাকা উত্তোলন করে আলোচনা সভা করা হয়েছে। আলোচনা সভায় কলপাড়া উপজেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মরহুম মাওঃ এনায়েতুর রহমান বেগ(বরফ কল) জামে মসজিদের ইমাম ও মসজিদ ভিত্তিক ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রাক প্রাথমিক কেন্দ্রের শিক্ষক হাফেজ আব্দুর রহিম শিশু শিক্ষার্থীদেরকে স্বাধীনতা ও বিজয় দিবস সম্পর্কে অবহিত করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ডাঃ ছিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাস সভাপতি বাংলাদেশ আ’লীগ লতাচাপলী ইউনিয়ন শাখা, মোঃ মিজানুর রহমান গাজী সাবেক সাধারন সম্পদক কুয়াকাটা প্রেসক্লাব প্রমুখ। পরে সকাল ৯টার দিকে মহিপুর ইউনিয়ন আ’লীগের উদ্যোগে মহিপুর কো-অপারেটিভ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পতাকা উত্তোলন, শহীদ মিনারে পুস্পার্পন আলোচনা সভা করা হয়েছে। মহিপুর শিল্পিগোষ্ঠির উদ্যোগে রাতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মির্জাগঞ্জেঃ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যেদিয়ে মির্জাগঞ্জে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে।  শুক্রবার সকালে প্রত্যুষে ৩১বার তোপধ্বনির  উপজেলা  মুক্তিযোদ্ধা ফলকে  পূস্পস্তবক অর্পন এবং সকল সরকারি-বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যেদিয়ে দিবসের সূচনা করা হয়। এ উপলক্ষে সকাল উপজেলা পরিষদ মাঠে মুক্তিযোদ্ধা, পুলিশ, আনসার ও ভিডিপি ,ফায়ার সার্ভিস,বাংলাদেশ স্কাউটস্ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীদের, কুচকাওয়াজ। মহিলাদের অংশগ্রহণে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা শহীদপরিবার,  মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা , সুখী,সমৃদ্ধ ,ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে ডিজিটাল প্রযুক্তির সার্বজনীন ব্যবহার শীর্ষক আলোচনা।জাতির শান্তি ও অগ্রগতি কামনা করে মসজিদ, মন্দিরসহ অন্যান্য উপাসনালয়ে দোয়া ও প্রার্থনা।দুপুরে হাসপাতালে, ইয়াতিম খানায় উন্নত মানের খাবার পরিবেশন, ফুটবল প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্টান,আলোচনা সভা এ উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মাসউদ পারভেজ মজুমদার। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান মোঃ আবু বকর সিদ্দিকি।বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামীলীগের আহবায়ক গাজী আতাহার উদ্দিন আহম্মেদ। আওয়ামীলীগের সিনিয়ন নেতা মোঃ ইসমাইল হোসেন মৃধা, মির্জাগঞ্জ থানর ভারপাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান, ৪নং দেউলী ইউনিয়ানের চেয়ারম্যান মোঃ আজিজ হাওলাদার ,আওয়ামীলীগের যুগ্ন-আহবায়ক অধ্যাপক মোঃ ইউনুচ আলী সরদার, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস হাসিনা হাবিব, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ শহিদুল ইসলাম ,বিশিষ্ট্য সমাজ সেবক মোঃ আনোয়ার হোসেন খান,যুবলীগ সভাপতি মোঃ লোটাস,সাধারন সম্পাদক মোঃ শফিকুল ইসলাম মহাসিন মৃধা,বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের সভাপতি মোঃ আয়ুউব আলী মৃধা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ সাইফুল ইসলাম সোহাগ মৃধা, উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারন সম্পাদক মোঃ জহিরুল ইসলাম জুয়েলসহ আওয়ামীলীগ,যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবিন্দ। এ ছাড়াও উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের বিভিন্ন  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  পৃথক পৃথক ভাবে মহান বিজয় দিবস উদযাপন  করে।