পটুয়াখালীতে নারী সহ আটক বায়োসেফের ক্যাশিয়ার প্যারামেডিক ডাক্তার আবু বক্কর

1

 

ডেস্ক রিপোর্ট ঃ পটুয়াখালী শহরের বায়োসেফ মেডিকেল সার্ভিসেস সেন্টারের ক্যাশিয়ার ও প্যারামেডিক ডাক্তার আবু বক্করকে এক নারীসহ আটক করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, বায়োসেফের ক্যাশিয়ার আবুবক্কর বিবাহের প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় তিন বছর ধরে নাজমা বেগম নামের এক নারীর সাথে শহরের বিভিন্ন স্থানে বাসা ভাড়া করে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এ সম্পর্কের এক পর্যায় আনুমানিক দেড় বছর আগে নাজমা এক কন্যা সন্তান প্রসব করেন। ঘটনার দিন বুধবার রাত ৮টার সময় সিএন্ডবি রোড এলাকায় নাজমার ভাড়া বাসায় গিয়ে আবুবক্কর নাজমাকে বোনের বাড়ি বাকেরগঞ্জ যাবার জন্য কাপড় চোপর গুছাতে বলে। এনিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় আবু বক্কর নাজমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গলাটিপে ধরে। এ সময় নাজমার ডাকচিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসে এবং পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এ খবরে বায়োসেফের অন্যতম শেয়ার পরিচালক আনোয়ার হোসেনসহ একাধিক লোক পুলিশকে ম্যানেজ করে আবু বক্করকে ছাড়িয়ে আনার চেষ্টা করে। এ ঘটনা অবহিত হলে পুলিশ সুপার সৈয়দ মোসফিকুর রহমান ভিকটিমসহ আবু বক্করকে থানায় নেয়ার জন্য সংশ্লিস্ট পুলিশকে নির্দেশ দেন। থানার ওসি তারিকুল ইসলাম বিষয়টি মিমাংসার জন্য স্থানীয় কাউন্সিলর নিজামুল হককে ও পটুয়াখালী প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম প্রিন্স এবং বায়োসেফের অন্যতম পরিচালক আনোয়ার হোসেন সহ কয়েকজনকে দায়িত্ব দেন। শালিসদার সাংবাদিক প্রিন্স জানায়, নাজমা কোন টাকা পয়সা চায়না সে তার কন্যার পিতার স্বীকৃতি চায়। কিন্তু একটি চক্র নাজমাকে কিছু টাকা দিয়ে দীর্ঘদিনের সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটানোর অপচেষ্টা করছেন। তবে একাধিক শালিশদার ও সংশ্লিষ্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে বৃহস্পতিবার রাত দশটায় পাঁচ লক্ষ টাকা দেন মোহরে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়েছে মেয়ে ও নববধুকে আবুবক্করের জিম্মায় দেয়া হয়েছে।