পটুয়াখালীতে পবিপ্রবি’ ভিসি ড.শামসুদ্দীনের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত সম্পর্কে কটাক্ষ করার প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন

0

06পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. শামসুদ্দীন এর বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর মাজার জেয়ারত সম্পর্কে অনৈতিক বক্তব্যের প্রতিবাদ করেছেন দুমকি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সদস্যবৃন্দ।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ দুমকি উপজেলা কমান্ডের কমান্ডার সৈয়দ গোলাম মরতুজা। তিনি বলেন, ৩০ লক্ষ শহীদ ও ২ লক্ষ মা বোনের সভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত মহান স্বাধীনতার স্থাপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে ১৬ জানুয়ারী দুমকি উপজেলার শতাধিক মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত ও তাকে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য কর্মসূচী গ্রহন করে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ দুমকি উপজেলা কমান্ড। এ কর্মসূচী গ্রহনের প্রেক্ষিতে দুমকি বাসীর বুকের উপর প্রতিষ্ঠিত পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এর নেতৃত্বাধীন সরকারের নিযুক্ত ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. শামসুদ্দীন এর কাছে বঙ্গবন্ধুর মাজারে যাবার লক্ষ্যে ১০জানুয়ারী বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ দুমকি উপজেলা কমান্ডের কমান্ডার আঙ্গারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ গোলাম মরতুজা পাঁচজন মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন বাসের জন্য লিখিত আবেদন করেন। এ লিখিত আবেদনটি দেখে ও শুনে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. শামসুদ্দীন বলেন বঙ্গবন্ধুর মাজার যাবেন তাতে আমার কি, মাজারে যাবার জন্য কোন বাস দেয়া যাবে না বলে আবেদনটি ফিরিয়ে দেন ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. শামসুদ্দীন। এতে মুক্তিযোদ্ধাদের ধারনা ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. শামসুদ্দীন বঙ্গবন্ধুর মাজার সম্পর্কে কটাক্ষ করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে মুক্তিযোদ্ধারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. শামসুদ্দীনের অপসারন দাবী করেছেন। ভিসি’র অপসারন দাবীতে আগামী ১৪ জানুয়ারী দুমকিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করবেন বলেও মুক্তিযোদ্ধারা উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান।