পটুয়াখালীতে ভূমিদস্যু করিম গাজীর কবল থেকে পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

40

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীতে ভূমিদস্যু সন্ত্রাসী করিম গাজী কর্তৃক জোরপূর্বক পৈত্রিক সম্পত্তি দখল ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।
গতকাল শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় পটুয়াখালী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে পটুয়াখালী পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের বহালগাছিয়া এলাকার বাসিন্দা মোঃ নাসির উদ্দিন হাওলাদারের লিখিত বক্তব্য সূত্রে জানাগেছে, তার (নাসির উদ্দিন হাওলাদারের) দাদা হাজী আয়নালী হাওলাদার বিগত ২৮.১০.১৯৬৫ইং তারিখ একই এলাকার মো. মোসলেম গাজীর কাছ থেকে সাড়ে ৬৩ শতাংশ জমি ক্রয় করে নাসির হাওলাদারের বাবা মো. নূর উদ্দিন হাওলাদারের নামে রেজিস্ট্রি (দলিল) করেন এবং ক্রয় সূত্রে ওই জমির মালিক হন নূর উদ্দিন হাওলাদার। পরবর্তীতে নূর উদ্দিন হাওলাদার মৃত্যু বরণ করলে পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত নাসির হাওলাদার ঐ সম্পত্তিতে স্থাপনা নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করলে এ সময় মোসলেম গাজীর শ্যালক ভূমি দস্যু সন্ত্রাসী করিম গাজী তার সন্ত্রাসী লোকজন নিয়ে নির্মান কাজে বাধা দেয়এবং স্থাপনা নির্মান সামগ্রী খুঁটি, টিনসহ মালামাল জোরপূর্বক নিয়ে যায়। এ ঘটনা পটুয়াখালী সদর থানায় জানালে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনাটি শালিসের মাধ্যমে ফয়সালা করার জন্য সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলরসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিগনকে দায়িত্ব দেন।
শালিসগণ উভয় পক্ষের কাগজপত্র দেখতে চান, তখন মোসলেম গাজীর শ্যালক করিম গাজী শালিসগণকে জানান ওই জমি ১৯৮৮ সালে তার নামে দলিল হয়েছে। অথচ মোসলেম গাজী ওই জমি ১৯৬৫ সালের ২৮ অক্টোবর নাসিরের বাবা মো. নূর উদ্দিন হাওলাদারের নাম রেজিস্ট্রি দলিল করে দেন। শালিসগণ উভয়ের কাগজপত্র পর্যালোচনা করে নাসিরের পক্ষে রায় দেন। কিন্তু ভূমিদস্যু করিম গাজী ওই জমি নাসিরকে ভোগদখল করতে দিচ্ছে তো না-ই, উল্টো নাসির ও নাসিরের ভাইসহ পরিবারের নামে লুটপাটের মিথ্যা মামলা দিতে থানায় গেলে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সংশ্লিস্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলরসহ শালিসগণের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা (শালিসগণ) লুটপাটের ঘটনা মিথ্যা এবং করিম গাজীর সাজানো নাটক বলে জানালে ওসি মামলা গ্রহণ না করলে তারা আদালতে গিয়ে মামলা করে এবং বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখায়ে হয়রানি করছে বলে সংবাদ সম্মেলনে নাসির হাওলাদার জানান। সংবাদ সম্মেলনে ভূমি দস্যু করিম গাজীর অনৈতিক জুলুম-নির্যাতন এবং মিথ্যা ও সাজানো মামলা থেকে রক্ষাসহ সন্ত্রাসী করিম গাজীর কবল থেকে পৈত্রিকা সম্পত্তি রক্ষা করতে পারে তার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন নাসির হাওলাদারসহ পরিবারের সদস্যরা। এ সময় নাসির উদ্দিনের সাথে ছিলেন ভূমি দস্যুর করিম গাজীর আপন ভাগ্নে আশ্রাফ গাজী, চাচাতো ভাই ফারুক গাজী, নাসির হাওলাদারের শ্যালক সাখাওয়াত হোসেন সোহাগ প্রমুখ। #