পটুয়াখালীতে র‌্যাবের হাতে আটক-১

3

হৃদয় আশিষ ,পটুয়াখালী ঃ র‌্যাব প্রতিষ্ঠার পর থেকে র‌্যাব-৮, পটুয়াখালী ক্যাম্প কর্তৃক নিষিদ্ধ ঘোষিত মাদকদ্রব্য, জঙ্গি গ্রেফতার অভিযান পরিচালনা করে আসছে। এই অভিযান আরও জোরদার করার লক্ষ্যে র‌্যাব-৮, সিপিসি-১, পটুয়াখালী ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল গত র‌্যাব-৮, সিপিসি-১, পটুয়াখালী ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দলের সহায়তায় বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, এনডিসি, পটুয়াখালী জনাব মোঃ মহিউদ্দিন খন্দকার এর উপস্থিতিতে গত ০৫ নভেম্বর ২০১৫ তারিখ পটুয়াখালী জেলার সদর থানা এলাকায় আনুমানিক ২০০০ ঘটিকা হতে ২২০০ ঘটিকা পর্যন্ত একটি মোবাইলকোর্ট অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান পরিচালনাকালে আনুমানিক ২১.৩০ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় যে, পটুয়াখালী জেলার সদর থানাধীন পটুয়াখালী জেলার, জেলা প্রশাসকের বাসভবনের দক্ষিণ পাশের পাকা রাস্তার উপর রিক্সা যোগে একজন ব্যক্তি অবৈধ মাদক গাঁজা বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে নিজ হেফাজতে রেখে অনত্র নিয়ে যাচ্ছে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি রাত আনুমানিক ২২.০০ ঘটিকার সময় ঘটনাস্থলের সন্নিকটে পৌছলে আভিযানিক দলের উপস্থিতি টের পেয়ে কিক্সা থেকে নেমে কৌশলে পালানোর চেষ্টাকালে ১। মোঃ আলম সর্দার(৩৭)(পেশা- গাঁজা ব্যবসায়ী), পিতাঃ মৃত আসমত আলী সর্দার, সাং- শ্রীরামপুর, এ/পি থানাপাড়াস্থ জনৈক খালেক চৌকিদারের বাড়ীর ভাড়াটিয়া থানা ও জেলা পটুয়াখালী । আটকৃত ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদে একপর্যায়ে স্বীকার করে যে, সে তার নিকট গাঁজা আছে এবং সে গাঁজা ক্রয়/বিক্রয়ের সাথে জড়িত। পরবর্তীতে ধৃত আসামীর স্বীকারোক্তি মোতাবেক স্থানীয় জনসাধারনের উপস্থিতিতে ধৃত আসামীর হাতে থাকা একটি সাদা রঙের প্লাষ্ঠিকের বাজার করা ব্যাগের মধ্যে হতে ৪.৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। অবৈধ মাদকদ্রব্য গাঁজা নিজ হেফাজতে রেখে বিক্রয় করার অপরাধে বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, এনডিসি, পটুয়াখালী কর্তৃক ধৃত আসামীকে ০২(দুই) বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান এবং ২,০০০/- (দুই হাজার) টাকা জরিমানা করে জেল হাজতে প্রেরন করেন। আদালতের রায় অনুয়ায়ী বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, এনডিসি, পটুয়াখালী এর উপস্থিতিতে উদ্ধারকৃত গাঁজা ধ্বংস করা হয়।