পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে ধান কাটা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষ আহত-১৫

0

মির্জাগঞ্জ প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দু পক্ষের সংঘর্ষে আহত হয়েছে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১৫ জন। মঙ্গলবার সকালে মির্জাগঞ্জ উপজেলার দক্ষিন গাবুয়া গ্রামে বিরোধীয় জমির ধান কাটা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধে। এতে নারী সহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে।

আহতরা হলেন মোঃ আবদুল আজিজ হাওলাদার, মোঃ হারুন হাওলাদার, রাজিয়া বেগম, মোসাম্মৎ শাহনাজ বেগম, রোমানা বেগম, মিঠু হাওলাদার, মিলন হাওলাদার, আবদুল মান্নান হাওলাদার, মোঃ হেলাল হাওলাদার, মোঃ মামুন হাওলাদার, মোঃ কবির হাওলাদার ও মোঃ সিদ্দিক হাওলাদার। আহতদের মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে হারুন, রাজিয়া ও মামুনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আহত ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কাকড়াবুনিয়া ইউনিয়নের দক্ষিন গাবুয়া(ভাটামারা) গ্রামের মোঃ আবদুল আজিজ হাওলাদারের সাথে তাঁর চাচাতো ভাই মোঃ হেলাল হাওলাদার(চৌকিদার) এর সাথে জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে একাধিকবার স্থানীয় ভাবে শালিশ বৈঠক হলেও হেলালের লোকজন তা মানতে নারাজ। মঙ্গলবার সকালে আজিজ হাওলাদার ভাই মোঃ হারুন ও মিলন হাওলাদার বিরোধীয় জমির ধান(নারা) কাটতে গেলে হেলাল হাওলাদারসহ তাঁর লোকজন তাদেরকে বাধাঁ দিলে কথাকাটাটির এক পর্যায়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধেঁ। এতে অন্তত দু’পক্ষের অন্তত ১৫জন আহত হয়।

এ ব্যাপারে মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় থানায় কোন পক্ষ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।