পৌর কাউন্সিলর জাকি হোসেন জুকু সহ ২৬ জনের নামে মামলা

2

গোফরান পলাশ, কলাপাড়া প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ক্ষমতাসীন দলের ক্যাডারদের সশস্ত্র হামলার জেরে কলাপাড়া থানায় মঙ্গলবার একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। কলাপাড়া পৌরসভার মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার বাদী হয়ে পৌর কাউন্সিলর জাকি হোসেন জুকু, খায়রুল হাসনাত খালিদ, নুর-আলম ও মিঠু সহ ২৬ জনকে আসামী করে দন্ড বিধির ১৪৩/৩৪১/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৫০৬ (খ) ও ৩৪ ধারায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, পৌর কাউন্সিলর জাকি হোসেন জুকু ও খায়রুল হাসনাত খালিদের নেতৃত্বে এক দল সন্ত্রাসী তার লাইসেন্সকৃত শট গান গুলি সহ ছিনিয়ে নিতে চাইলে তার ছেলে বিকাশ হাওলাদার সহ মিন্টু মল্লিক ও কাসেম বাঁধা  দেয়। এসময় ধারালো অস্ত্র দ্বারা তাদের তিন জনকে উপর্যুপরি কুপিয়ে সন্ত্রাসীরা স্বর্নের চেইন, ল্যাপটপ ও গুলি সহ শটগানটি ছিনিয়ে নেয়। এর আগে সোমবার দুপুরে চাকামইয়া ইউনিয়নের কাঠালপাড়া স্লুইজ গেটের নিয়ন্ত্রন নিয়ে পৌর কাউন্সিলর জাকি হাসান জুকু ও খায়রুল হাসনাত খালিদের নেতৃত্বে এক দল সন্ত্রাসী চাকামইয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো: হুমায়ুন কবির কেরামত ও তার সমর্থক গিয়াস মাতুব্বরকে আহত করে।

এদিকে  পৌর কাউন্সিলর জাকি হোসেন জুকু  পৌর মেয়র বিপুল হাওলাদার এর ছেলে বিকাশ হাওলাদারকে প্রধান করে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে দন্ড বিধির ১৪৩/৩৪১/৩৮৫/৩৭৯/৫০৬ (খ) ধারায় কলাপাড়া থানায় একই দিন পাল্টা অপর একটি মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ এ পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে শহরজুড়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কলাপাড়া থানার ওসি জিএম শাহনেওয়াজ জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। শহরে আইন শৃংখলা রক্ষায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।