বঙ্গোপসাগরে ৬ দিন ভেসে থাকার পর জীবিত জেলে উদ্ধার

0

 

গোফরান পলাশ, কলাপাড়া প্রতিনিধি: বঙ্গোপসাগরের চালনা পয়েন্ট থেকে ভাসমান অবস্থায় ভারতীয় এক জেলেকে উদ্ধার করেছে বাংলাদেশী জেলেরা। রোববার সকালে হরিকমল দাস (৩৮) নামের ওই জেলেকে পটুয়াখালীর মহিপুর উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। মহিপুর উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক ডা. সুবীর পাল জানান, ভারতীয় জেলের উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন।

উদ্ধার হওয়া ভারতীয় জেলে হরি কমল জানায়, ৬আগষ্ট, শনিবার এমভি মহা গৌরী নামের ভারতীয় ট্রলারটি ঝড়ের কবলে পড়লে তিনিসহ ১৭ জেলে নিখোঁজ হন। এরপর পানির একটি ড্রাম ধরে ৬দিন সমুদ্রে ভেসে থাকার পর বাংলাদেশের জেলেরা তাকে উদ্ধার করে। ভারতীয় জেলে হরিকমলের বাড়ি ভারতের চব্বিশ পরগনা জেলার কাকদ্বীপ থানার কৈলাশ নগর গ্রামে। ভাসমান হরিকমলকে উদ্ধার করে নিয়ে আসা কক্সবাজারের এফবি কমলা ট্রলারের জেলে সালাউদ্দিন ও হাফেজ জানান, বৃহস্পতিবার (১১ আগষ্ট) বিকেলে বঙ্গোপসাগরের চালনা পয়েন্টে ভাসমান ওই জেলেকে দেখে তাদের ট্রলারে তোলেন তারা। উদ্ধারের পর থেকে কিছু মুখে দেয়নি জেলে হরিকমল।

মহিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাকসুদুর রহমান জানান, ভারতীয় জেলে উদ্ধার হওয়ার বিষয়টি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে।

মংলা কোষ্ট গার্ডের  জোনাল কামান্ডার ক্যাপ্টেন  মেহেদী মাসুদ জানিয়েছেন, রবিবার  ভোরে হিরণ পয়েন্ট  থেকে প্রায় ৩০ কিলোমিটার দূরে গভীর সমুদ্রে ভাসমান অবস্থায় পাঁচ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রসংগত, ৬ আগষ্ট, শনিবার  বেলা ২টার দিকে প্রতিকূল আবহাওয়ায় এমভি মহাগৌরী ও এমভি প্রসেনজিত নামের দু’টো ভারতীয় মাছধরা ট্রলার ডুবে যায়। দুই ট্রলারে ১৭  থেকে ২০ জন  জেলে ছিল বলে জানা যায়।