বাউফলে আ’লীগের বর্ধিত সভা

2

বাউফল প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সামসুল আলম মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ আসম ফিরোজ এমপি। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক জহিরুল ইসলাম শাহীন,পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক রায়হান সাকিব, বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার ও বাউফল উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন খান প্রমুখ। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চিফ হুইপ বলেন, বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলে অনেক অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করেও আওয়ামীলীগ কর্মীরা সংঘবদ্ধ ও সুসংগঠিত রয়েছে। বর্তমানে একটি দুষ্ট চক্র দল ভাঙার ষড়যন্ত্র করছে। ওই দুষ্ট চক্র চি‎িহ্নত করে তাদেরকে মোকাবেলা করতে হবে। তিনি বলেন, গাঁজা ও ইয়াবাসহ নানা রকম মাদকে আজ গোটা বাউফল সয়লাব হয়ে গেছে। এক সময়ের নন্দিত বাউফল আজ নিন্দিত হয়ে গেছে। মাদকদ্রব্য প্রতিরোধের জন্য তিনি নেতাকর্মীদের কাজ করার আহবান জানান। চিফ হুইপ সভায় উপস্থিত বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা ভোটের কালেক্টর, আপনারা ভাল কাজ করলে সাধারণ মানুষ নৌকায় ভোট দিবেন। আর খারাপ কাজ করলে জনগন মুখ ফিরিয়ে নিবেন। সুতরাং আপনাদের সব সময় জনগনের কল্যাণের জন্য কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, পটুয়াখালী এক সময় শুধু খালী ছিল। এখন ভরপুর জেলা হিসেবে পরিচিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পটুয়াখালীতে মেডিকেল কলেজ, পায়রা বন্দর, বিদ্যুৎ প্লান্ট, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, লেবুখালী সেতু ও সেনা ক্যান্টনমেন্ট করে দিয়েছেন। এখন পদ্মা সেতুর কাজ সম্পন্ন হলে গোটা দক্ষিণাঞ্চলের চিত্র পাল্টে যাবে। অথচ এই পদ্মা সেতু নিয়ে দেশী-বিদেশী অনেক যড়যন্ত্র হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে আজ নিজেদের অর্থায়নে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ করছেন।