বাউফলে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রকাশ্যে মহড়া

0

অতুল পাল,বিশেষ প্রতিনিধি: বাউফলে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ক্রমেই উত্তপ্ত হচ্ছে জনপদ। মাঠ দখলের লড়াইয়ে এলাকার এবং বহিরাগত সন্ত্রাসিরা প্রকাশ্যে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে মহড়া দিচ্ছে। অস্ত্রের ঝন-ঝনানি দেখে সাধারন ভোটারদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। ২২ মার্চ নির্বাচনের দিন নিরাপদে ভোটকেন্দ্র গিয়ে ভোট দিতে পারবেন কি না সেটা নিয়েও তাদের মনে সংশয় রয়েছে।

উল্লেখ্য, নির্বাচনী সহিংসতায় ইতিমধ্যেই আদাবাড়িয়া ইউপিতে নৌকার এক সমর্থককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এখন নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দেয়া, প্রতিপক্ষের নির্বাচনী ক্যাম্প ভাংচুর, হামলা, নির্বাচনী আচারণ বিধি লংঘন ইত্যাদি নিত্যদিনের বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে। প্রতিদিনই রিটানিং অফিসারদের কাছে এনিয়ে অভিযোগ আসছে। প্রশাসন ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা ও সাজা দিয়েও এ  ঘটনার ইতি টানতে পারছেননা। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এরই মধ্যে ৯৯টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৫৬টিকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চি‎িহ্নত করেছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিভিন্ন ইউনিয়নের কয়েকজন সাধারন ভোটার জানান, নির্বাচনের পূর্বে, নির্বাচনের দিন এবং নির্বচনের পর মাঠ দখলে রাখতে কেবল দেশীয় অস্ত্র নয় আগ্নেয়াস্ত্রোসহ সন্ত্রাসিদের ভাড়াও করা হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বাউফল উপজেলা ইউপি নির্বাচনের সমন্বয়কারী মোহম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহামুদ জামান জানান, প্রার্থীদের থেকে বহিরাগতদের মাধ্যমে ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ পেয়েছি। আমরা এ বিষয়ে সজাগ দৃষ্টি রাখছি। এদিকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত পুলিশ দম ছাড়তে পারছেন না। তবে যেভাইে হোক, নির্বাচন সুষ্ঠু সুন্দর ও আন্দঘন পরিবেশে সম্পন্ন করা হবে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানিয়েছেন।