বাউফলে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার

0

অতুল পাল, বিশেষ প্রতিনিধি: বাউফলের নাজিরপুর ইউনিয়নের ধানদি গ্রাম থেকে রোববার রাতে লামিয়া (২০) নামের এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। স্বজনরা উদ্ধার করা লাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে পালিয়ে গেছেন। গতকাল সোমবার পুলিশের কাছে মুচলেকা দিয়ে লামিয়ার পিতা ও স্বামী লাশ নিয়ে গেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের ধানদি গ্রামের মো. আলতাফ জোমাদ্দারের মেয়ে লামিয়ার সাথে দেড় বছর আগে একই ইউপির অহেদ রাড়ির ছেলে মো. নান্নুর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই কারণে অকারণে তাদের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটতে থাকে। ঘটনার দিন রোববার সন্ধার দিকে লামিয়ার পিতা আলতাফ জোমাদ্দার জামাতার পক্ষ নিয়ে লামিয়াকে মারধর করেন। এরপরে রাত সারে ৮ টার দিকে ঘরের পেছনে গাছের সাথে লামিয়ার ঝুলন্ত দেহ দেখেতে পেয়ে স্বজনরা দ্রুত উদ্ধার করে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন। এঘটনার পর এক পর্যায় স্বজনরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

চিকিৎসক মো. আফজাল হোসেন জানান, লামিয়ার গলায় দাগ রয়েছে। তবে ময়না তদন্তের পরে বিষয়টি পরিস্কার হওয়া যাবে। এ বিষয়ে বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আযম খান ফারুকী বলেন, ঘটনার জন্য কোন পক্ষ মামলা করতে রাজি হয়নি। লামিয়ার স্বজনরা মুচলেকা দিয়ে লাশ নিয়ে গেছেন।