বাউফলে জুয়েলারি ডাকাতি ॥ জুয়েলারি ব্যবসায়িদের এক দিনের ধর্মঘট

2

অতুল পাল, বিশেষ প্রতিনিধি: শনিবার সন্ধা সারে সাত টায় বাউফল থানা থেকে ১০০ গজ দুরত্বে অবস্থিত কুন্ডু পট্টির একটি জুয়েলারিতে গুলি ও বোমা ফাটিয়ে ডাকাতি করার ঘটনায় এখনো কোন হদিস করতে পারেনি পুলিশ। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ নিয়েও চলছে ধু¤্রজাল। এদিকে গতকাল রোববার বেলা ১১ টার দিকে জুয়েলারির মালিক অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে বাউফল থানায় একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করেছেন। ডাকাতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবিতে বাউফ উপজেলার শতাধিক জুয়েলারি ব্যবসায়িরা রোববার একদিনের ধর্মঘট পালন করেছেন। পুলিশ রোববার সকালে বাউফল সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের প্র¯্রাবখানা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় একটি ককটেল ও নাজিরপুর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের হাজী বাড়ির পশ্চিম পাশ থেকে রক্তমাখা দ’ুটি গেঞ্জি উদ্ধার করেছে। স্থানীয় এমপি ও জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ আ.স.ম. ফিরোজ গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, থানার অদুরে সংঘটিত এধরণের ডাকাতি পুলিশের চরম ব্যর্থতা।

সূত্র থেকে জানা গেছে, শনিবার সন্ধা সারে ৭ টার দিকে ৬/৭ জনের একটি ডাকাত দল স্বর্ণের চেইন কেনার জন্য ক্রেতা সেজে বাউফল থানার ১০০ গজ অদুরে কুন্ডু পট্টির বীনা জুয়েলার্সে ঢোকেন। ডাকাত দল দোকানে ঢুকেই কর্মচারী কৃষ্ণ ঘোষের মাথায় আগ্নেয়া¯্র ঠেকিয়ে দোকানের শার্টার আটকানোর নির্দেশ দেয়। এসময় দোকানের অন্যান্য কর্মচারীরা চিৎকার দিলে ডাকাতের দল পরপর ৪/৫টি হাত বোমা ফাটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। এরপর তারা দোকানের শোরুমের শোকেচে রাখা স্বর্ণালংকার লুট করে একটি প্লাষ্টিকের বস্তায় ভরে পালিয়ে যায়। দোকান কর্মচারীরা আবারো বাধা দিলে ডাকাত দল কর্মচারীদের গায়ে হাতবোমা ছুঁরে মারে। ওই বোমায়  কর্মচারী শ্রীবাস দেবনাথ (২৮), সুধান্য বালা (২৭) গুরুতর আহত হয়। এরপর ডাকাত দল সদর রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় ভির হওয়া লোকদের উদ্দেশ্যে হাত বোমা ছুঁরে মারে। এসময় পথচারী আলতাফ গাজী (৫৫) নামে অপর একজন গুরুতর আহত হয়। ঘটনার পর বাউফল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ঘটনাস্থলে গিয়ে দোকানে সংরক্ষিত সিসি টিভিটি একজন কম্পিউটার অপারেটর দিয়ে খুলিয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(তদন্ত) লুৎফর রহমানের কাছে দেন। এরপর ইউএনও এবং স্থানীয় সাংবাদিকরা থানায় এসে ওই সিসি ফুটেজ দেখার জন্য অনেকক্ষণ অপেক্ষা করলেও ওসি (তদন্ত) লুৎফর রহমান থানায় আসেননি। এরপর থেকেই থানার সামনে অবস্থান নেয়া শত শত উৎসুক জনতার মধ্যে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হতে থাকে। বাউফল থানার ওসি (তদন্ত) লুৎফর রহমান জানান, সিটি টিভির সেটটি খোলা ঠিক হয়নি বলে এসপি সাহেব ইউএনওকে বলেছেন। তিনি বলেন, আরো একটি হাতবোমা ও ডাকাতের ব্যবহৃত জামা কাপড় উদ্ধার করা হয়েছে। সন্দেহজনকভাবে রনজিত নামের একজন ওয়েলডিং মিস্ত্রিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব আটক করেছে।  এদিকে স্থানীয় এমপি ও জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ আ.স.ম. ফিরোজ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, থানার ১০০ গজের মধ্যে সংঘটিত এধরণের ডাকাতি হওয়া পুলিশ প্রশাসনেরই ব্যর্থতা। এবিষয়ে তিনি উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করবেন বলেও জানান। তিনি সাংবাদিকদের সঠিক তথ্য জনসন্মূখে তুলে ধরারও আহবান জানান। গতকাল রোববার বেলা ১১ টার দিকে বীনা জুয়েলার্সের মালিক সুশান্ত সাহা অজ্ঞতনামা ৫/৬ জনকে আসামি এবং ৫৮ ভরি স্বর্ণলংকার লুট করা হয়েছে উল্লেখ করে বাউফল থানায় একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করেছেন। এদিকে অবিলম্বে ডাকাতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে বাউফল উপজেলার প্রায় শতাধিক জুয়েলারি ব্যবসায়িরা রোববার একদিনের ধর্মঘট পালন করেছেন।