বাউফলে তেঁতুলিয়া নদীতে ধানের কার্গোতে ডাকাতি

4

অতুল পাল, বিশেষ প্রতিনিধি: বাউফলের তেঁতুলিয়া নদীর মমিনপুর পয়েন্টে এমভি আল্লার দান নামক একটি ধান বোঝাই কার্গো দিনে দুপুরে ডাকাতের কবলে পরছে। কার্গোটি কালাইয়া বন্দর থেকে ১ হাজার ২৫০ মণ ধান নিয়ে চাঁদপুর যাচ্ছিল। শুক্রবার বেলা আড়াইটার দিকে এঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে কালাইয়া নৌ পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে রওয়ানা হয়েছেন বলে জানা গেছে।

কালাইয়া বন্দরের ধান ব্যবসায়ি মানিক কৃষ্ণ কুন্ডু জানান, কালাইয়া বন্দর থেকে প্রায় ৫ হাজার মণ ধান বোঝাই করে আল্লার দান, মায়ের আচল, মায়ের দোয়াসহ মোট ৪টি কার্গো বেলা ১ টায় চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। বেলা আড়াইটার দিকে তেঁতুলিয়া নদীর মমিনপুর পয়েন্ট পর্যন্ত গেলে পেছনে থাকা আল্লার দান নামক কার্গোটিকে একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা দিয়ে গতিরোধ করা হয়। ওই নৌকাটি থেকে প্রায় ১৫ জনের একটি ডাকাত দল কার্গোতে উঠে সকলকে জিম্মি করে মালামাল লুট করতে থাকে। এসময় অন্যান্য কার্গোর লোকজন এগিয়ে এলে ডাকাত দল দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে। ভোরের কাগজের এ প্রতিনিধির মাধ্যমে বাউফল থানা পুলিশ এখবর পেয়ে তাৎক্ষণিক কালাইয়া নৌ পুলিশ ফাড়ির পুলিশকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। ওই কার্গোটিতে কালাইয়া বন্দরের ধান ব্যবসায়ি সুশান্ত ঠাকুর ও খোকন কুন্ডুর ধান রয়েছে বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য, চলতি বছরের আগষ্ট মাসে পায়রা বন্দর থেকে ক্লিংকার বোঝাই একটি জাহাজ মেঘনাঘাটে যাওয়ার পথে একই স্থানে ডাকাতের কবলে পরেছিল। মমিনপুর এলাকার কয়েকজন জানান, তেঁতুলিয়া নদীর এ পয়েন্টটিতে স্থানীয় কিছু দুস্কৃতিকারীদের সহায়তায় ভোলার এলাকার ডাকাত দল নির্ভিঘেœ ডাকাতি করে চলে যায়। বিষয়টি বহুবার প্রশাসনকে জানানো হলেও কার্যকর কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছেনা। বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আযম খান ফারুকী জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ রওয়ানা হয়েছে। নদীতে টহল জোরদার করার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।